গুরুদাসপুরে পিস্তলসহ আটক ২

গুরুদাসপুরের নাজিরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও  যুবলীগের দুই পক্ষের সমাবেশ চলছিলো পাশাপাশি। সমাবেশ চলাকালে সমাবেশস্থলের কাছ থেকে একটি বিদেশী পিস্তলসহ দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। 

বুধবার (১১ ডিসেম্বর) বিকাল ৫ টার দিকে নাজিরপুর ইউনিয়ন পরিষদের পাশ থেকে তাদের আটক করা হয়। 

আটককৃতরা হলেন- জুমাইনগর গ্রামের রায়হান আলীর ছেলে মুনসুর (১৮), একই গ্রামের ইয়াকুব আলীর ছেলে হুমায়ন (২০)। 

স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে- উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৭, ৮, ৯ নং ওয়ার্ড আ-লীগের কাউন্সিল নাজিরপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ও যুবলীগের প্রস্তুতি সমাবেশ একই সময় নাজিরপুর ডিগ্রী কলেজ মাঠে চলছিলো। 

আ-লীগের ওয়ার্ড কাউন্সিল সামাবেশে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আ’লীগের সভাপতি এ্যাড. আনিসুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মেয়র শাহনেওয়াজ আলী, পৌর আ’লীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি আহম্মদ আলী মোল্লা, স্থানীয় আ’লীগ নেতা সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আয়ুব আলী এবং ১৬ ডিসেম্বর উপলক্ষে যুবলীগের প্রস্তুতি সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান যুবলীগ সভাপতি মো. আলাল শেখ, সাধারণ সম্পাদক এসএম রাশেদ সরকার, নাজিরপুর ইউপি চেয়ারম্যান শওকত রানা লাবু, জেলা পরিষদের সদস্য লুৎফর রহমান হিরা প্রমূখ। সমাবেশের পাশেই একটি ব্যাগ হাতে নিয়ে অবস্থান করছিলেন অস্ত্রধারী দুই যুবক। 

পুলিশ জানায়, নাজিরপুর বাজারে একই সময়ে আ-লীগের ও যুবলীগের সমাবেশে চলছিলো। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সমাবেশ স্থলের পাশে সন্দেহজনকভাবে ঘোরাফেরার সময় দুই যুবককে আটক করা হয়। 

এসময় তাদের কাছে থাকা ব্যাগে একটি লোড করা বিদেশী পিস্তল, ২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। এই সংবাদ লেখা পর্যন্ত আটককৃতদের গুরুদাসপুর থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

গুরুদাসপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আনারুল ইসলাম বলেন, সমাবেশে হামলার পরিকল্পনা ছিল কিনা এজন্য আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।