পাহাড়ে গাঁজা চাষ, সেনাবাহিনীর অভিযান

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলার দুর্গম এলাকায় ৮০ বিঘা জমির গাঁজাক্ষেত ধ্বংস করেছে সেনাবাহিনী।

বৃহস্পতিবার (২ জানুয়ারি) দুপুর দেড়টার দিকে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে উপজেলার ধইল্যা কমলচরণ কার্বারি পাড়া এলাকায় অভিযান চালায় মহালছড়ি জোন সেনাবাহিনীর একটি দল। এদিন অন্তত ৭০ থেকে ৮০ বিঘা জমির গাঁজা আগুনে পুড়িয়ে ফেলা হয়।

এ সময় গাঁজা চাষের সঙ্গে সম্পৃক্ত কাউকে আটক করা যায়নি। নিরাপত্তা বাহিনীর উপস্থিতিতে গ্রাম ছেড়ে পালিয়েছে অবৈধ গাঁজা চাষিরা। নিরাপত্তা বাহিনী এসব মাদক ব্যবসায়ী ও দুষ্কৃতকারীদের আটক করার অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে একটি বিশেষ গোষ্ঠীর ছত্রচ্ছায়ায় খাগড়াছড়ির দুর্গম পাহাড়ে গাঁজার চাষ করা হয়। গাঁজা চাষের জন্য দুর্গম পাহাড়ি এলাকাকে বেছে নেয়া হয়েছে।

নিরাপত্তাবাহিনী সূত্র জানায়, মহালছড়ি জোনের উপ-অধিনায়ক মেজর আসিফ ইকবালের নেতৃত্বে অর্ধশত সেনা এ অভিযানে অংশ নেন। মহালছড়ি জোনের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মেহেদি হাসানও অভিযানকালে উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া পুলিশ ও মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের লোকজনও এ অভিযানে অংশ নেয়। উপস্থিত ছিলেন- পুলিশের এসআই মহিউদ্দিন আহমেদ ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপ-পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ।

অভিযান প্রসঙ্গে এসআই মহিউদ্দিন আহমেদ জানান, শুধু মাদকদ্রব্যের উৎস ধ্বংস নয়। এসব চাষাবাদে জড়িতদের ধরতেও চেষ্টা চালানো হচ্ছে। এসব ব্যাপারে আলামত সংগ্রহ করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।