কক্সবাজারে সৌদি নাগরিকের মরদেহ উদ্ধার

কক্সবাজারের সদর উপজেলার ঈদগাঁও বাসস্ট্যান্ড এলাকার একটি ভাড়া বাসা থেকে মোহাম্মদ হাসান (৩৫) নামের এক সৌদি নাগরিকের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে তার মৃতদেহ জনৈক শামশুল আলম এর ভবনের ৫তলার ছাঁদ থেকে উদ্ধার করা হয়। মোহাম্মদ হাসান সৌদি আরবের মৃত আবদুল হামিদ প্রকাশ এবাদুল্লাহর ছেলে।

পুলিশ সূত্র জানায়, হাসান বিগত ১ বছর আগে পূর্ব পরিচিতির সুবাদে জালালাবাদ ইউনিয়নের পুর্ব মিয়াজী পাড়া এলাকার মৃত নুরুল কবিরের ছেলে বজলুর রশিদের বাড়িতে আসে। সেখানে ৩/৪ মাস অবস্থান করার পর আলাদা রুম নিয়ে ভাড়া বাসায় উঠেন ৬ মাস আগে। গতকাল রুমে তার মৃতদেহ পাওয়া যায়।

এ সময় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হাসানের নিকটআত্মীয় সৌদি নাগরিক বর্তমানে লিংক রোডের অবস্থানরত অপর মৃত হাসানের ছেলে শমির, হুমায়ুন, মাজেদ ও চৌফলদন্ডী মাইজপাড়া এলাকার ফয়সাল নামের আরেক যুবককে তদন্ত কেন্দ্রে নিয়ে আসা হয়েছে। তবে তারা মৃত্যুর সংবাদ শুনে হাসানের ভাড়া বাসায় তাকে দেখতে আসছিল বলে পুলিশকে জানিয়েছেন।

স্থানীয় লোকজনের বরাত দিয়ে লাশ উদ্ধারকারী পুলিশ কর্মকর্তা এসআই কাজী আবুল বাসার বলেন, ধৃত ফয়সাল মৃত হাসানের সাথে প্রায় সময় চলাফেরা করত। রাতে তার সাথে রুমে ছিল কিনা জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। মৃত মৃতদেহ উদ্ধারের সময় মুখ বাঁকা এবং দাঁতের মাড়িতে হালকা রক্ত দেখা গেছে। লাশটি ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্ত রিপোর্ট হাতে আসলে মৃত্যুর আসল রহস্য জানা যাবে।

তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আসাদুজ্জামান মৃতদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মৃত হাসানের পক্ষে কেউ মামলা, অভিযোগ করলে তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।