আমতলীতে বাস চাপায় একই পরিবারের ৩ জন নিহত

বরগুনার আমতলী উপজেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় মা ও ছেলেসহ একই পরিবারের তিন জন নিহত হয়েছেন। 

শনিবার (২৫ জানুয়ারি) বেলা সোয়া ১১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

নিহতরা হলেন-মা নুপুর বেগম (৩০), ছেলে নিশাত (১০) ও বড় বোনের মেয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থী লামিয়া (১৫)। এছাড়া নুপুরের ছোট মেয়ে মমতা (৬), শাহাবুদ্দিন (৫৬) ও গ্রাম্য চিকিৎসক জব্বার (৪০) আহত হয়।

জানাযায়, পটুয়াখালী থেকে ছেড়ে আসা মায়ের দোয়া পরিবহন বাসটি (পটুয়াখালী-জ-১১-০০১০) পটুয়াখালী-কুয়াকাটা মহাসড়কের আমতলী একে স্কুলের কাছে এসে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ফেলে। পরে বাসটি একটি মাইক্রোবাসকে ধাক্কা দেয়। এরপরে বাসটির চালক গাড়ি চালু রেখে পালিয়ে যায়। 

বাসটি চালু অবস্থায় প্রথমে দুইটি অটোরিক্সা চাপা দেয়। বাসের চাপায় দুইটি অটো দুমড়ে-মুড়চে যায়। এরপর বাসটি সামনে চলতে থাকে। দ্রুত গতিতে চালকহীন বাসটি সাত জন পথচারীকে চাপায় দেয়। এতে ঘটনাস্থলে একই পরিবারের তিনজন নিহত হয়। 

আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল বাশার এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ঘাতক বাসটি উদ্ধার করা হয়েছে। একই পরিবারের তিনজনের ময়না তদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে পাঠানো হয়েছে। 

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।