কক্সবাজারে নারীসহ স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আটক

পর্যটন শহর কক্সবাজারের কলাতলীর হোটেল-মোটেল জোনস্থ নির্মাণাধীন একটি কটেজ থেকে নারীসহ জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা ও কটেজ মালিক সমিতির সভাপতি কাজী রাসেল আহম্মেদ নোবেলকে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) ভোরে পর্যটন এলাকার বাতিলকৃত প্লটে তার নির্মাণাধীন কটেজ থেকে তাকে আটক করা হয়। এ সময় এক নারীকেও আটক করা হয়েছে। আটককৃত নারীর নাম মীম জাহান বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

পুলিশ জানায়, কক্সবাজার পর্যটন এলাকার কলাতলীর হোটেল মোটেল জোনে দীর্ঘ দিন ধরে দলীয় পরিচয়ে কাজী রাসেল নানা আপত্তিকর কর্মকান্ড করে আসছিল। প্রায় সময় তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ পাওয়া যেত। সাম্প্রতিক সময়ে মোরশেদ নামের এক যুবককে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে রাসেল। এই ঘটনায় মডেল থানায় তাকে প্রধান আসামি করে মামলা করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় সোমবার ভোর রাতে অভিযান চালিয়ে নারীসহ তাকে আটক করা হয়।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) মো. খাইরুজ্জামান সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, কাজী রাসেলকে নারীসহ আটক করা হয়েছে। আটকের পর অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। সব কিছু আমলে নিয়ে তদন্তপূর্বক পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কক্সবাজার জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খায়সারুল হক জুয়েল বলেন, কোন অপরাধী দলের হতে পারে না। অপরাধ করলে শাস্তি পেতে হবে। যদি নারীসহ কাজী রাসেল আটক হয়ে থাকে তাহলে তার বিরুদ্ধে দলীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আটক কাজী রাসেলের ভাই স্থানীয় কাউন্সিলর কাজী মোর্শেদ আহমেদ বাবুর দাবি, পারিবারিক কলহের জের ধরে তাকে আটক করানো হয়েছে।