যৌতুকের জন্য ঘুমন্ত স্ত্রীর শরীরে আগুন

ময়মনসিংহের তারাকান্দায় যৌতুকের জন্য ঘুমন্ত শিরীন আক্তার (২৫) নামে এক গৃহবধূকে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে স্বামী ও শ্বাশুরীর উপর। এ ঘটনায় শ্বাশুরী ও ননদকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রবিবার (২২ মার্চ) দুপুরে উপজেলার কাকনী ইউনিয়নের পঙ্গুয়াই গ্রামে এ ঘটনা ঘটে এবং সোমবার (২৩ মার্চ) সকালে গৃহবধূর বাবা তারাকান্দা থানায় তিনজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

জানা যায়, পঙ্গুয়াই গ্রামের সিরাজ আলীর মেয়ে শিরীন আক্তারের প্রায় ৩ বছর আগে বিয়ে হয় একই এলাকার সোহেল মিয়ার সাথে। স্ত্রী শিরীন আক্তারকে যৌতুকের জন্য প্রায়ই মারধর করতো স্বামীর পরিবার। এর জেরেই রবিবার দুপুরে ঘুমন্ত অবস্থায় তার গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন। তার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে সোহেল মিয়া পালিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী ও পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা ঢাকা মেডিক্যালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন।

এ ব্যপারে তারাকান্দা থানার ওসি আবুল খায়ের জানান, গৃহবধূর শরীরের শ্বাসনালীসহ প্রায় ৭৫ ভাগ পুড়ে গেছে। বর্তমানে ঢাকা মেডিক্যালের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন আছেন ওই গৃহবধূ। গৃহবধূর শাশুড়ি ও ননদীকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।