ছাত্রীকে বিদ্যালয়ের ভেতর ধর্ষণের অভিযোগে মামলা

চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলায় এক স্কুলছাত্রীকে ম্যানেজিং কমিটির সদস্যের ছেলে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

ছাত্রীর পরিবারের অভিযোগ, প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মারুফ হোসেন (২৫) তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। ছাত্রীটি উপজেলার একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণিতে পড়ে।

বৃহস্পতিবার মারুফকে প্রধান ও এক সহযোগীসহ দুইজনকে আসামি করে সন্দ্বীপ থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন ওই ছাত্রীর বাবা।

মারুফের পিতা ছাত্রীটির স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির প্রভাবশালী সদস্য আবদুর রবের ছেলে বলে জানা গেছে।

ছাত্রীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত ডিসেম্বর মাসের শেষদিকে তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় তলার একটি রুমে ধর্ষণ করে। বিষয়টি পরিবারে জানাজানি হলে ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন।

সন্দ্বীপ থানার ওসি শেখ শরিফুল আলম জানান, বৃহস্পতিবার ছাত্রীর বাবা ধর্ষণের অভিযোগ আনলে আমরা তা গ্রহণপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করছি।

এ দিকে গত ৪ দিনেও আসামিকে গ্রেফতার করতে পারেনি। উল্টো ভিকটিমকে থানা হেফাজতে নিয়ে নানা ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। এমনকি মামলা তুলে নেয়ার হুমকি দিচ্ছে।

অভিযোগ উঠেছে, সন্দ্বীপের একজন প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতা প্রকাশ্যে ওই আসামির পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। এ কারণে নাকি পুলিশ অ্যাকশনে যাচ্ছে না।