নরসিংদীতে ভ্রাম্যামাণ আদালতের অভিযানে ৫৩ হাজার টাকা জরিমানা

নরসিংদীতে লকডাউন অমান্য করায় ৪৬টি মামলায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিকে ৫৩ হাজার ২০০ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

বুধবার  দিনব্যাপী  জেলার বিভিন্ন উপজেলায় একাধিক আদালতে এ সাজা দেয়া হয়।

বুধবার সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট সিলভিয়া স্নিগ্ধা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, পবিত্র রমজান উপলক্ষ্যে বাজার মনিটরিং এবং করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে জেলার ৬ উপজেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটগণ। এসময় ৪৬ জনকে অভিযুক্ত করে ৫৩ হাজার ২০০ টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়।

এরমধ্যে নরসিংদী জেলা শহর ও শিল্পাঞ্চল মাধবদী এলাকায় ৪ জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট দিনব্যাপি মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ২৫ টি মামলায় ২৫ জনকে ৩৭ হাজার ৯০০ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করে। শিবপুর উপজেলায় পরিচালিত ০১ টি মোবাইল কোর্টে ০৫ টি মামলায় ০৫ জনকে ৩২০০ টাকা, রায়পুরা উপজেলায় পরিচালিত ০১টি মোবাইল কোর্টে ০৬ টি মামলায় ০৬ জনকে ৩১০০ টাকা, পলাশ উপজেলায় পরিচালিত ০১ টি মোবাইল কোর্টে ০৫ টি মামলায় ০৫ জনকে ১৮০০ টাকা, বেলাব উপজেলায় পরিচালিত ০১ টি মোবাইল কোর্টে ০৪ টি মামলায় ০৪ জনকে ২২০০ টাকা ও মনোহরদী উপজেলায় পরিচালিত ০১ টি মোবাইল কোর্টে ০১ টি মামলায় ০১ জনকে ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়।

এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট সিলভিয়া স্নিগ্ধা বলেন, গত ১২ এপ্রিল ২০২১ তারিখে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ কর্তৃক আরোপিত বিধি নিষেধ পরিপালন, পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষ্যে বাজার মনিটরিং এবং সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি মনিটরিং করার জন্য জনস্বার্থে নরসিংদী জেলায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা অব্যাহত থাকবে।

উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) পরিস্থিতির অবনতির কারণে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সকল প্রকার পরিবহন বন্ধ রাখা, অতি জরুরী প্রয়োজন ব্যতীত কোনভাবেই বাড়ির বাইরে বের না হওয়া, খাবারের দোকান ও হোটেল-রেস্তোারা দুপুর ১২.০ টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত এবং রাত ১২.০ টা হতে ভোর ৫ টা পর্যন্ত কেবল খাবার বিক্রয়/সরবারহের শর্তে খোলা রাখাসহ ১৩ দফা বিধি নিষেধ জারি করে।