ঝিনাইদহে বন্ধুকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে হত্যা, গ্রেপ্তার ২

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার চুটলিয়া গ্রামে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে সম্রাট বিশ্বাস (২৭) নামের এক ভেকু চালক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে তার বন্ধুরা।

রবিবার রাত ৯ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।  এ ঘটনায় জড়িত থাকার অপরাধে ২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

নিহত সম্রাট বিশ্বাস ওই গ্রামের সমীর বিশ্বাসের ছেলে।

নিহতের মা রিনা বেগম জানান, রাত সাড়ে ৮ টার দিকে তার প্রতিবেশী গোলাপ হোসেনের ছেলে সবুজ আমার ছেলেকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে সবুজের বাড়ির পিছনের তার গলাকাটা লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয় এলাকাবাসী। ঘটনার সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তার লাশ উদ্ধার করে।

ঝিনাইদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আনোয়ার সাঈদ বলেন, একটি মার্ডারের ঘটনা ঘটেছে। তবে কি কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে তা তাৎক্ষণিক জানা যায়নি। এ ঘটনার সাথে যারা জড়িত তাদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে এ ঘটনায় নিহতের মা রিনা খাতুন বাদী হয়ে ৭ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতদের আসামি করে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। মামলা দায়েরের পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে মামলার ৩ নম্বর আসামী শিমুল ও ৫ নম্বর আসামি সবুর আলীকে গ্রেপ্তার করেছে।

এদিকে, এর আগে জনৈক ভেকু ঠিকাদার অভ্যান্তরিত বিষয় নিয়ে সম্রাট বিশ্বাসের ভেকু চালক বন্ধু সবুজকে পিটায়। পিটানোর ঘটনায় সম্রাটকে সন্দেহ করে সবুজ তাকে হত্যা করতে পারে মর্মে একটি সূত্রে জানা গেছে।