বাচ্চাদের ঝগড়া রূপ নিল জোড়া খুনে

সুনামগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত হয়েছেন স্বামী ও স্ত্রী।

রবিবার রাত ৮টা হতে সাড়ে ৮টার মধ্যে উপজেলার বেহেলী আলীপুর গ্রামে ঘটে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- জেলার জামালগঞ্জ উপজেলার বেহেলী আলীপুর গ্রামের তাহের আলীর ছেলে আলমগীর (৩০), তার স্ত্রী মূর্শেদা খাতুন (২৭)।

সোমবার সকালে জামালগঞ্জ থানার ওসি মো. সাইফুল ইসলাম এ তথ্য  জানিয়ে বলেন,  দম্পতির মরদেহ সোমবার সকালে জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ জোড়া খুনের ঘটনায় জড়িত আপাতত কাউকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি। পুলিশ তদন্তে নেমেছে।

নিহত দম্পতির পারিবারিক সূত্র জানায়, উপজেলার বেহেলী আলীপুর গ্রামে আলমগীর ও চাচাত ভাই রাসেল এ দুই পরিবারের শিশুদের মধ্যে রবিবার ইফতারের পুর্বে ঝাগড়া হয়। পরে রাত ৮টার দিকে আলমগীর স্ত্রীকে সাথে নিয়ে নিজ বসতঘরে রাতের খাবার খেতে বসেন।
অপরদিকে শিশু ও মহিলাদের দু'দফা ঝাগড়াঝাটির জের ধরে সহযোগিদের নিয়ে চাচাত ভাই রাসেল তার স্ত্রীর উস্কানীতে ক্ষিপ্ত হয়ে আকস্মিক আলমগীরের ঘরের ভেতর প্রবেশ করে রাতের খাবার খাওয়া অবস্থায় আলমগীর ও তার স্ত্রী মোর্শেদা বেগমকে ছুরিকাঘাত করেন।

মা-বাবার রক্তার্থ নিথর দেহ ঘরের মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখে আলমগীরের কিশোরী কন্যার চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা এসে তাদেরকে রাতেই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। পরে সেখানকার কতর্ব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।