বগুড়ায় রকি হত্যা মামলার ৭ আসামি গ্রেপ্তার

বগুড়ায় আওয়ামী লীগ নেতা মমিনুল ইসলাম রকি হত্যার প্রধান আসামি গাউছুল আজমসহ ৭ আসামিকে অস্ত্রসহ আটক করেছে র‌্যাব-১২।


শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় রংপুর জেলার বদরগঞ্জ উপজেলার ফকিরগঞ্জ গ্রাম থেকে তাদের আটক করা হয়।

শনিবার দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে র‌্যাব-১২ বগুড়া কোম্পানি কমান্ডার লেঃ কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামন (জি), বিএন।

আটককৃতরা হলো- বগুড়া সদর উপজেলার কৈচর গ্রামের মহসিন আলীর পুত্র মেহেদী হাসান (১৮), মাজেদ আলীর পুত্র ফজলে রাব্বী (৩০), ফাঁপোড় গ্রামের আখের আলীর পুত্র আরিফুর রহমান (২৮), মজিদের পুত্র গাউছুল আজম (২৮), রেজাউল করিমের পুত্র ফুয়াদ হাসান মানিক (২৯), মালগ্রামের মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ পুত্র আলী হাসান (২৮), বেলগাড়ী গ্রামের রেজাউল করিমের পুত্র আহাদ (২০)।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, আসামিগণ দীর্ঘদিন যাবৎ মাদক ব্যবসা, মাদক সেবন ও অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অসামাজিক কর্মকাণ্ডে লিপ্ত ছিল। ভিকটিম ধৃত আসামিদেরকে মাদক সেবন, মাদক ব্যবসা ও অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অসামাজিক কর্মকাণ্ডে বাধা প্রদান করত। এ ছাড়াও আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভিকটিম আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী ছিলেন। আসামীদের মনে ভয় ছিল। ভিকটিম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে তাদের অবৈধ কর্মকান্ড বাধাগ্রস্ত হবে।

প্রধান আসামি গাউছুল তাকে হত্যার পরিকল্পনা করে এবং বিভিন্ন আসামিকে ডেকে একত্রিত হয়ে ভিকটিম রকির উপর আক্রমণ করে। আসামিরা ভিকটিম রকিকে এলোপাতারিভাবে আঘাত করে হত্যা করে। আসামিদের ভাষ্যমতে, গাউছুলের পরিকল্পনায় এই হত্যাকাণ্ড হয়েছে।

র‌্যাব-১২ বগুড়া কোম্পানি কমান্ডার লেঃ কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামন (জি), বিএন বলেন, তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বগুড়া সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।