বেগমগঞ্জে সহিংসতার ৩ মামলা সিআইডিতে হস্তান্তর

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের চৌমুহনীতে মন্দির ভাঙচুর ও হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় দায়ের করা তিন মামলার তদন্তের দায়িত্ব পেয়েছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম।

তিনি বলেন, চৌমুহনীর ইসকন মন্দিরে দুটি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় দায়ের করা মামলা, কলেজ রোডের তিনটি মন্দির ভাঙচুরের মামলা ও ব্যাংক রোডের দুটি মন্দির ভাঙচুরের ঘটনায় দায়ের করা মামলা তদন্ত করবে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

তিনি আরও বলেন, মন্দির ভাঙচুর ও সহিংসতার ঘটনায় দায়ের করা ২৬ মামলায় এ পর্যন্ত ২০১ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর মধ্যে ৯০ জন এজাহারভুক্ত এবং ১১১ জন সন্দেহভাজন আসামি। তাদের মধ্যে ছয়জন ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন।

বিশেষ পুলিশ সুপার (সিআইডি) মো. বশির আহমেদ  বলেন, হামলা, ভাঙচুর ও হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় যারা উপস্থিত ছিলেন, মদদ দিয়েছেন এবং যারা এখনও আইনের আওতায় আসেনি, তাদের আইনের আওতায় আনার জন্য কাজ করবে সিআইডি।