কিশোর প্রেমিকের বাড়িতে কিশোরী প্রেমিকার বিষপান

১৬ বছরের এক ছাত্রকে ভালোবেসে বিয়ে করতে না পেরে বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে ১৫ বছরের এক স্কুলছাত্রী। তারা দুইজনই সদর উপজেলার আলিয়ারপুর আজিজ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী।


সদর উপজেলার আলিয়ারপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ছেলে ও মেয়েটিকে উদ্ধার করে থানায় নেয়। 


পুলিশ জানায়, সদর উপজেলার আলিয়ারপুর গ্রামের এক কৃষকের ছেলে ও পার্শ্ববর্তী দশমী গ্রামের এক দিনমজুরের মেয়ে স্থানীয় আলিয়ারপুর আজিজ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। গত ২ বছর আগে তাদের মধ্যে প্রেম সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তারই ফলশ্রুতিতে মেয়েটি ছেলেটিকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। কিন্তু ছেলের কোন সাঁড়া না পেয়ে গতকাল সোমবার (১৫ নভেম্বর) বিকালে এক বোতল বিষ নিয়ে ছেলেটির বাড়ির সামনে হাজির হয় মেয়েটি। সেখানে ছেলেটিকে ডেকে বাড়ির সামনেই বিষপান করে মেয়েটি। সাথে সাথেই মেয়েটিকে উদ্ধার করে দশমী গ্রামের বাজারে চিকিৎসকের কাছে নেয় তারা। 


খবর পেয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর পুলিশ মঙ্গলবার উভয়পক্ষের অভিভাবককে ডাকা হয়। চুয়াডাঙ্গা সদর থানা ওসি বিষয়টি নিয়ে উভয়পক্ষে পরিবারকে বলেন, প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত মেয়ে ও ছেলেটির বিয়ে দেবেন না বলে অঙ্গীকার করান। শেষে মেয়েটির বাবা দিনমজুর হওয়ায় তার লেখাপড়ার দায়িত্ব নেন ওসি।


চুয়াডাঙ্গা থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন বলেন,  ১৫ বছরের ছাত্রী তার সহপাঠীকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। এতে সাড়া না পেয়ে ওই ছাত্রী ওই ছাত্রের বাড়ির সামনে যায় এবং বিষপান করে। তাকে সাথে সাথেই স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হলে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে সুস্থ করা হয়।