খাগড়াছড়িতে আদিবাসী তরুণীকে কুপিয়ে খুন

রুমি ত্রিপুরা (১৮) নামে এক তরুণীকে খুন করেছে প্রতিবেশী দুর্বৃত্ত। রবিবার (১৭ জুলাই) বিকেলে খাগড়াছড়ির মানিকছড়ি উপজেলার গরমছড়ি গদিচন্দ্র পাড়া থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।


জানা গেছে, মানিকছড়ি উপজেলার ৩ নম্বর যোগ্যাছোলা ইউনিয়নের ৮ নং গরমছড়ি ওয়ার্ডের গদিচন্দ্র পাড়ার মৃত রশীরাম ত্রিপুরার ছোট মেয়ে রুমি ত্রিপুরা। তাকে প্রতিবেশী বুদক্তি ত্রিপুরা (৩০) উঠান থেকে ডেকে নিয়ে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। পরে তার মরদেহ বাড়ির পাশে মাটিতে পুঁতে রাখে।


এদিকে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। সেই সঙ্গে ঘটনায় জড়িত বুদক্তি ত্রিপুরাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে যায়।


নিহতের মা সুজিরং ত্রিপুরা বলেন, সকালে আমি দুই মেয়েকে বাড়িতে রেখে পানি আনতে পাহাড়ের নিচে যাই। এ সময় বুদক্তি আমার মেয়েকে ডেকে নিয়ে চুল ধরে মাটিতে ফেলে কুপিয়ে হত্যা করে। আমি এ নির্মম হত্যার বিচার চাই।


ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করে মানিকছড়ি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শাহনূর আলম বলেন, তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত বুদক্তি ত্রিপুরাকে পুলিশ হেফাজতে আনা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।