আশুলিয়ায় দেশীয় অস্ত্রসহ ৪ ডাকাত গ্রেপ্তার

প্রাইভেটকার নিয়ে ডাকাতির প্রস্ততিকালে আশুলিয়ায় নবিনগর চন্দ্রা মহাসড়কে দেশীয় অস্ত্রসহ ৪ ডাকাতকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় ডাকাতদেরকে তল্লাশি করে রাম-দাসহ দেশীয় বিভিন্ন অস্ত্র জব্দ করা হয়। সোমবার আশুলিয়া থানা পুলিশ তাদের ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করে আদালতে পাঠিয়েছে।


এর আগে ভোরে নবীনগর চন্দ্রা মহাসড়কের আশুলিয়ার ডেন্ডাবর কবরস্থান রোডের বিপরীত পাশে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দেশীয় অস্ত্রসহ তাদেরকে গ্রেপ্তার করেছে আশুলিয়া থানা পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।


গ্রেপ্তারকৃত ডাকাতরা হলেন- ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও থানার সুবনাপুর গ্রামের মো. আকতার হোসেনের ছেলে মো. সাজু(১৯), নীলফামারী জেলার ডিমলা থানার কাকিনা চাপানি গ্রামের মো. আরশাদ হক এর ছেলে মো. হাবিবুর রহমান সম্রাট(১৮), ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা থানার সিগারপুর গ্রামের মো. সাইফুল ইসলামের ছেলে মো. মনিরুল ইসলাম ওরফে জাহারুল ও ঝিনাইদহ জেলার সদর থানার গোপালপুর গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে মো. নাঈম। তারা বর্তমানে আশুলিয়ার ইসলামনগর এলাকার বিভিন্ন বাড়িতে ভাড়া থাকে।


পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সোমবার ভোরে নবীনগর বাসস্ট্যান্ড থেকে বাইপাইলের দিকে টহলরত অবস্থায় আসার পথে ডেন্ডাবর কবরস্থান রোডের বিপরীতে আল মদিনা বিরানী হাউজের সামনে একদল ডাকাত চলন্ত যান বাহনের গতিরোধ করে ডাকাতির প্রস্তুতির নেয়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালানোর চেষ্টা করে একটি নিল রংয়ের প্রাইভেটকার। অভিযান চালিয়ে তাদের ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়। পালিয়ে যায় একজন।


আশুলিয়া থানার এস আই জাহাঙ্গীর আলম বলেন, তাদের বিরুদ্ধে মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে ডাকাতি ও ছিনতাইয়ের অভিযোগ রয়েছে। মূলত মহাসড়কে যানবাহনসহ পথচারীদের টার্গেট করে সুযোগ বুঝে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে সব লুটে নেয় এই ডাকাতেরা। প্রাথমিক ভাবে কিছু তথ্য আমরা সংগ্রহ করেছি। তাদেরও আইনের আওতায় আনা হবে।