ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য্যের মধ্যদিয়ে কুমারী পূজা অনুষ্ঠিত

শারদীয় দুর্গোৎসবের আজ মহাঅষ্টমী। সোমবার সকাল থেকেই ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মণ্ডপে মণ্ডপে শুরু হয় অষ্টমী বিহিত পূজা। ষোড়শ উপাচারে পূজিত হচ্ছেন দেবী দুর্গা। অষ্টমী তিথিতে শহরের কালাইশ্রীপাড়ার শ্রী শ্রী রাধাগোবিন্দ আখড়া মন্দিরে অনুষ্ঠিত হয় কুমারী পূজা। বিশেষ এই পূজাকে ঘিরে সকাল থেকেই পূন্যার্থীদের ভিড়ে মুখরিত ছিল মন্দির প্রাঙ্গন।


এ সময় এক কিশোরীকে দেবীর আসনে বসিয়ে দেবী দুর্গার ন’টি রূপের কথা মাথায় রেখে ঢাক, কাসার তালে আর শঙ্খ ও উলুধ্বনির মাধ্যমে ধর্মীয় রীত অনুযায়ী পূজার্চনা করা হয়। হিন্দু শাস্ত্র অনুযায়ী, কলাসুর নামের এক অসুর স্বর্গ ও মর্ত্য অধিকার করে নিয়েছিল। এ থেকে পরিত্রান পেতে দেবতারা মহাকালীর কাছে উদ্ধারের জন্য প্রার্থনা করলে মহাকালী শিশুকন্যা রূপে জন্ম নিয়ে কুমারীরুপে কলাসুরকে বধ করেন। এর পর থেকেই দুর্গপূজার অষ্টমী তিথিতে কুমারী পূজা হয়ে আসছে। এদিকে জেলার প্রতিটি মন্দিরে উৎসবমূখর ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে উদযাপিত হচ্ছে শারদীয় দুর্গোৎসব।