দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তেঁতুলিয়ায়

দেশের বিভিন্ন স্থানে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ চলছে। শনিবার সকাল ৯টায় তেঁতুলিয়ায় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। হিমেল বাতাসের সঙ্গে ঘন কুয়াশায় শীতের মাত্রা আরও বাড়িয়ে তুলেছে।


আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, দেশের ২৪ জেলার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে। এ সময় অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে।


তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের উচ্চ সহকারী রোকনুরজ্জামান জানান, গত কয়েকদিন ধরে তেঁতুলিয়ায় তাপমাত্রা উঠা-নামা করছে। শনিবার (২১ জানুয়ারি) সকাল ৯টায় তেঁতুলিয়ায় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।


জানা গেছে, তীব্র শীতে দুর্ভোগে পড়েছেন পঞ্চগড়ের অসহায় ও শ্রমজীবী মানুষজন। শীত উপেক্ষা করে কাজের সন্ধানে ছুটে চলেছেন তারা। ভোর থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত ঘন কুয়াশা থাকায় সড়কে যানবাহনগুলোকে হেডলাইট জ্বালিয়ে চলাচল করতে দেখা গেছে।


শ্রীমঙ্গল আবহাওয়া অফিসের কর্মকর্তা মো. আনিসুর রহমান জানান, মৌলভীবাজারে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ চলছে। কনকনে ঠান্ডা বাতাসও বইছে। শ্রীমঙ্গলে সকাল ৬টার দিকে তাপমাত্রা ৬ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।


গত কয়েকদিন ধরে মৌলভীবাজারে তাপমাত্রা উঠা-নামা করছে। শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৫ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।


এদিকে, ফরিদপুর, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, রাজশাহী, পাবনা, নওগাঁ, সিরাজগঞ্জ, মৌলভীবাজার, রাঙ্গামাটি, কুমিল্লা, ফেনী, যশোর, চুয়াডাঙ্গা, কুষ্টিয়া, বরিশাল ও ভোলা জেলাসহ রংপুর বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। শীত উপেক্ষা করে কাজে বের হয়ে বিপাকে পড়েন নিম্ন আয়ের মানুষ।


আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, শনিবার সারা দেশে তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে, যা পরদিন রোববার পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। এছাড়া বর্ধিত ৫ দিনের আবহাওয়ায় সামান্য পরিবর্তন হতে পারে।


আবহাওয়া অফিসের তথ্যানুযায়ী, উপমহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বাড়তি অংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তার কাছাকাছি এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।


রাজধানী ঢাকায় শনিবার সূর্যাস্ত সন্ধ্যা ৫টা ৩৭ মিনিটে।