আমি অধিনায়ক না থাকলেই ভালো হবে: সাকিব

অধিনায়কত্ব ছাড়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের টেস্ট টি-২০ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। চট্টগ্রামে আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্টে পরাজয়ের পরই তিনি এ ইচ্ছে প্রকাশ করেন।

গতকাল সংবাদ সম্মেলনে সাকিব বলেন, আমার মনে হয়, যদি আমি অধিনায়ক না থাকি তবে সেটাই ভালো হবে। আমার দিক থেকে দেখলে, এটা আমার ক্রিকেটের জন্য ভালো হবে। আর যদি আমাকে নেতৃত্ব দিতেই হয়, তবে অনেক কিছু নিয়েই আলোচনা করার আছে।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট শুরুর ছয়দিন আগে একইরকম কথা বলেছিলেন সাকিব। দেশের একটি শীর্ষ স্থানীয় জাতীয় দৈনিকের সঙ্গে সাক্ষাতকারে সাকিব বলেছিলেন, টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টিতে নেতৃত্ব দেয়ার জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুত নই আমি। তবে দল যেহেতু ভালো অবস্থায় নেই, বুঝতে পারছি আমাকে এখানে নেতৃত্ব দিতে হবে। না হলে, আমি কোনো ফরমেটেই নেতৃত্ব দিতে আগ্রহী নই।

তবে নিজের একক সিদ্ধান্তে নয়, বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের সঙ্গে এ নিয়ে কথা বলতে চান সাকিব।

সিনিয়রদের মধ্যে মাশরাফি-সাকিব ছাড়া দীর্ঘমেয়াদে নেতৃত্ব দেয়ার অভিজ্ঞতা আছে কেবল মুশফিকুর রহীমের। এখন দেখার বিষয় আবার তার হাতেই জাতীয় দলের ব্যাটন উঠে কিনা। যদিও মুশফিককে একপ্রকার জোর করেই অধিনায়কের পদ থেকে সরানো হয়েছিল। তিনি এখন দায়িত্ব নিতে চান কিনা সেটাও একটা ব্যাপার।

তিনি যদি না চান তাহলে অপশন হবে মেহেদি হাসান মিরাজ। যিনি কিনা অনূর্ধ্ব ১৯ দলকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন।