ক্ষুধার্ত নাফিস ইকবালকে খেতে যেতে দেননি রোহিতের স্ত্রী!

ভারতীয় ক্রিকেট দলের সেরা ওপেনার রোহিত শর্মা ও তার স্ত্রী ঋতিকা সাজদের সঙ্গে সুসম্পর্ক রয়েছে তামিম ইকবালের ভাই নাফিস ইকবালের।

শুক্রবার রাতে রোহিত শর্মার সঙ্গে ফেসবুক লাইভ চ্যাটে এমন তথ্যই দিলেন তামিম ইকবাল।

এ সময় তামিম রসিকতার সুরে রোহিতের কাছে জানতে চান, আচ্ছা রোহিত ভাই, আমার বড় ভাই নাফিস ভাইয়ের কথা আপনার মনে আছে?

জবাবে রোহিত জানান, কেন নয়? নাফিস ভাই তো ২০১৮ সালে আমাদের মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের সঙ্গে ছিলেন। যেবার মোস্তাফিজ মুম্বাইয়ে খেলেছিল।

এরপর তিনি বলেন, আমার স্ত্রীও নাফিস ভাইকে মনে রেখেছে। কারণ নাফিস ভাই তাকে ফ্রেঞ্চফ্রাই খাইয়েছিলেন। আর আমার স্ত্রীকে কেউ ফ্রেঞ্চফ্রাই খাওয়ালে তাকে ভোলে না।

এ কথা বলে রোহিত যখন হাসতে থাকেন তখন তামিম চমকে ওঠার মতো প্রশ্ন করেন। আচ্ছা, রোহিত ভাই আপনি কি জানেন, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের এক ম্যাচে আমার ভাই নাফিস প্রচণ্ড ক্ষুধার্ত অবস্থায় ভাবী মানে আপনার স্ত্রীর কারণে খেতে নিচে নামতে পারেননি। নাফিস ভাই যখন আপনার ওয়াইফকে বললেন, খুব ক্ষুধা পেয়েছে, আমি নিচে গিয়ে কিছু খেয়ে আসি। তখন ভাবী তাকে না করে দিয়ে বলেছিল, না না! এখন নিচে যাওয়া যাবে না।

তামিমের কথা শেষ হতে না হতেই হেসে দেন রোহিত।

বিস্তারিত ব্যাখ্যা দিয়ে রোহিত বলেন, আসলে আমার স্ত্রী ঋতিকা খুব সংস্কারবাদী। অনেক আজব আজব নিয়মে বিশ্বাস করে সে। সে মনে করে, খেলার সময় যে যেখানে বসে, সেখান থেকে নড়লেই দলের অমঙ্গল হয়। তার সঙ্গে যারা খেলা দেখতে বসে, তাদেরও উঠতে দেয় না সে। আমার বা আমার দলের অমঙ্গল হবে এই ভেবে এ কাজ করে সে। সেদিন নাফিস ভাইকেও সে কারণেই উঠতে দেয়নি ঋতিকা।