এই মডেল নাকি বিশ্বের সেরা সুন্দরী!

দুনিয়ার সবচেয়ে সুন্দরী নারী বেলা হাদিদ। অন্তত গণিতের হিসাব-নিকাশ তাই বলছে। প্রাচীন গ্রিক গণিত অনুসারে সৌন্দর্য্যের পরিমাপ করা হয় ‘গোল্ডেন রেশিও অব বিউটি পাই স্ট্যান্ডার্ড’ দিয়ে। এ পরিমাপে সবচেয়ে বেশি ৯৪.৩৫ শতাংশ নম্বর পেয়েছেন ২৩ বছর বয়সী এই সুপার মডেল। 

বিশেষজ্ঞরা মূলত তারকাদের মুখসহ বিভিন্ন অঙ্গের মাপ নিয়ে এই রায় দিয়েছেন। ‘গোল্ডেন রেশিও অব বিউটি পাই স্ট্যান্ডার্ড’-এ বেলার পরেই আছেন গায়িকা বিয়ন্সে। তাঁর স্কোর ৯২.৪৪। এরপর সেরা সুন্দরীর তালিকার সেরা পাঁচে আছেন যথাক্রমে আম্বার হার্ড, আরিয়ানা গ্রান্দে ও টেইলর সুইফট। 

গণিতের জটিল হিসাব-নিকাশের মাধ্যমে সেরা সুন্দরী খোঁজার কাজটির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন ডক্টর হুলিয়ান ডি সিলভা। যিনি একজন ফেসিয়াল কসমেটিক ও প্লাস্টিক সার্জারি বিশেষজ্ঞ। 

ডক্টর হুলিয়ান বলেন, বেলা তাঁর নিখুঁত থুতনির কারণে সবার চেয়ে এগিয়ে গেছে। কিন্তু তাঁর সব কিছুই সমান ভালো নয়। আমাদের গবেষণায় সবচেয়ে নিখুঁত চোখ স্কারলেট জোহানসনের। শারীরিক গঠনে বিয়ন্সে অনেক এগিয়ে থাকলেও কপাল ও ঠোঁটের কারণে পিছিয়ে গেছেন। সার্বিকভাবে সবার চেয়ে এগিয়ে আছেন বেলা। 

কে এই বেলা হাদিদ?

বেলা হাদিদ, যুক্তরাষ্ট্রের সুপার মডেল। তার পুরো নাম ইসাবেলা খায়ের হাদিদ। তিনি ১৯৯৬ সালের ৯ অক্টোবর যুক্তরাষ্ট্রের লজ আঞ্জেলসে জন্ম গ্রহণ করেন।

বেলা হাদিদ ফিলিস্তন-ডাচ বংশোদ্ভূত। তার বাবা মোহাম্মদ আনোয়ার হাদিদ ফিলিস্তিন বংশোদ্ভূত জর্ডানের নাগরিক। তিনি পেশায় একজন রিয়েল ইস্টেট ব্যবসায়ী। তার মায়ের নাম ইয়োলান্ডা। তিনি ডাচ (নেদারল্যান্ডস) বংশোদ্ভূত।

বেলা হাদিদের আরও কয়েকজন ভাই-বোন রয়েছে। তাদের মধ্যে আপন এক বোন ও এক ভাই রয়েছে। বেলার আপন বড় বোনের নাম গিগি। আর ছোট ভাইয়ের নাম আনোয়ার।

বেলা হাদিদের মা তার বাবাকে বিয়ে করার আগে ২০১১ সালে আমেরিকার মিউজিক প্রডিউসার ডেভিড ফসটারকে বিয়ে করেছিলেন। সেই সংসার থেকে বেলার রয়েছে আরও ৫ বোন।