সংসার ভাঙল আবাসিক হোটেল থেকে আটক সেই অভিনেত্রীর

একসময় সেক্স র‍্যাকেটে নাম জড়িয়েছিল। তারপর সেসব বিতর্কের দাগ মুছে বছর খানেক আগে রোহিত মিত্তলের সঙ্গে বিয়ে হয় শ্বেতা বসু প্রসাদের। তবে বছর ঘুরতেই খারাপ খবর। ভেঙে গেছে শ্বেতার সংসার।

গত বছরের ডিসেম্বরেই বিয়ে হয়েছিল তাঁর। ঠিক এক বছর বাদে ডিসেম্বরেই শ্বেতা নিজে জানালেন বিচ্ছেদের খবর। সোমবার রাতে নিজের ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্টে সেই খবর জানিয়ছেন অভিনেত্রী।

শ্বেতা লিখেছেন, রোহিত ও আমি যৌথভাবেই বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমরা বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’ তিনি আরও জানিয়েছেন যে কয়েক মাস চিন্তা ভাবনার পর তাঁরা এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

ভারতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্বেতা বসু প্রসাদ। কাজ করেছেন একাধারে বলিউড, মালায়ালা, টালিউড ও তেলেগু ইন্ড্রাস্টিতে। তবে একসময় অভাবের টানে নেমেছিলেন যৌন ব্যবসায়। হাতেনাতে আটক হয়েছিলেন একটি আবাসিক হোটেল থেকে।

২০১৪-এর সেপ্টেম্বরের গোড়ায় হায়দরাবাদের একটি হোটেল থেকে যৌন ব্যবসায় জড়িত থাকার অভিযোগে শ্বেতাকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। সে সময় সংবাদমাধ্যমে হায়দরাবাদ পুলিশের তরফেই শ্বেতার একটি বিবৃতি পাওয়া গিয়েছিল।

সেই বিবৃতিতে বলা হয়েছিল যে, অভাবে পড়েই যৌনপেশায় জড়িয়ে যেতে হয়েছে তাঁকে। পরবর্তীকালে হায়দরাবাদের আদালত শ্বেতাকে ক্লিন চিট দেওয়ার পরক্ষণেই সংবাদমাধ্যমকে খোলা চিঠি লিখেছিলেন শ্বেতা বসু প্রসাদ।

চিঠিতে তিনি দাবি করেছিলেন, যে ধরা পড়ার পরে তাঁর যে ‘স্বীকারোক্তি’র কথা সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছিল, তার আদ্যোপান্ত ভুয়া।