‘আমাকে যৌন সম্পর্ক স্থাপনে চাপ দিতেন যুবরাজের মা’

ভারতীয় ক্রিকেটার যুবরাজ সিংয়ের বড় ভাইয়ের সাবেক স্ত্রী আকাঙ্খা শর্মা বিস্ফোরক অভিযোগ এনেছেন যুবরাজের পরিবারের বিরুদ্ধে।

বিগ বস ১০-এর প্রতিযোগীর দাবি, যুবরাজের দাদা জোরাভারের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক তৈরি করার জন্য চাপ দিতেন মা শবনম। খুব তাড়াতাড়ি তাঁদের সন্তান হোক তেমনটাই নাকি চেয়েছিলেন তিনি।

আকাঙ্খা বলেন, আমার কাছে বিষয়টা খুব অস্বস্তির ছিল। জোরাভারের আর আমার কোনও মানসিক বা শারীরিক যোগাযোগ ছিল না। কারণ ওর দিক থেকে কোনও ইন্টারেস্ট ছিল না। আর সবচেয়ে সমস্যা তৈরি করতেন মা শবনম। আমরা কোথাও বেরোলেই উনি আমাদের সঙ্গে জুড়ে যেতেন। তারপর বলতেন, হাত ধরো, চুমু খাও। এভাবে হয় নাকি! যৌন সম্পর্ক তৈরি করাটা আমার একার দায়িত্ব তো ছিল না।

তিনি বলেন, আমরা তো এমন কোনও সমাজে বাস করছি না যেখানে বিয়ে মানেই বাধ্যতামূলক যৌন সম্পর্ক! তা হলে তো দেহব্যবসা আর ইচ্ছের বিরুদ্ধে যৌন সম্পর্কের মধ্যে কোনও পার্থক্য থাকে না। আমি জোরভারের সঙ্গে বন্ধুর মতো মেশার চেষ্টা করতাম। কিন্তু আমাদের মধ্যে যা কথা হত ও গিয়ে ওর মাকে বলে দিত। বাধ্য হয়ে বিয়ের মাত্র চার মাসের মধ্যে ওই বাড়ি ছাড়তে আমি বাধ্য হয়েছিলাম।

ডিভোর্সের পরই যুবরাজের মা শবনমের বিরুদ্ধে একের পর বিস্ফোরক অভিযোগ করেন আকাঙ্খা। যা নিয়ে দেশজুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়। বিস্ফোরক এহেন অভিযোগে রীতিমত কেঁপে ওঠে ক্রিকেটমহলও।