'তানাজি' মুক্তির ৬ দিনেই আয় ১০০ কোটি

বলিউডের বক্স অফিস কাঁপাচ্ছে অজয় দেবগণ, কাজল ও সাইফ আলী খানের সিনেমা 'তানাজি: দ্য আনসাং ওয়ারিওর'।

গত ১০ জানুয়ারি মুক্তি পেয়েছে সিনেমাটি। মুক্তির পরের দিনই ট্রেড অ্যানালিস্ট তরণ আদর্শ টুইট করে জানিয়েছেন 'তানাজি' হতে চলেছে ২০২০ সালের প্রথম ১০০ কোটির ছবি। না, তার কথার কোনো খেলাপ হয়নি।

মুক্তির ৬ দিনে ১০০ কোটি রুপিরও বেশি আয় করেছে 'তানাজি'। দর্শক সাড়ায় ভেসেছে মারাঠি ইতিহাস নির্ভর সিনেমাটি। সেই আনন্দে ভাসছেন ছবির অভিনেতা অজয় দেবগণ, কাজল ও সাইফ আলী খানেরাও। তবে ছবির প্রধান চরিত্রে অজয় থাকলেও দর্শকের প্রশংসায় অনেক এগিয়ে রয়েছেন সাইফ। তার অভিনয় মুগ্ধতা ছড়িয়েছে। ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে 'তানাজি'র রিভিউ সেই প্রমাণই দিচ্ছে।

তানাজি মালুসরে ছিলেন মারাঠা বীর ছত্রপতি শিবাজির ঘনিষ্ঠ বন্ধু এবং সহকর্মী। তাঁর সাহসিকতার কথা আজও মারাঠিদের মুখে মুখে ঘোরে। এই তানাজি মালুসরের বীরগাথাই দেখানো হয়েছে এই ছবিতে। আর তানাজি মালুসারের চরিত্রে অভিনয় করেছেন অজয় দেবগণ। তাঁর স্ত্রী সাবিত্রীর চরিত্রে রয়েছেন কাজল। এছাড়াও ছবির মূল খলনায়ক উদয়ভানের চরিত্রে রয়েছেন ছোটে নবাব সইফ আলি খান।

বিশেষজ্ঞদের অনেকেই বলছেন, মারাঠা আবেগ জড়িয়ে থাকার কারনেই এমন তরতর করে এগোচ্ছে ‘তানাজি’। সঙ্গে রয়েছে কাজল-অজয়ের অনস্ক্রিন কেমিস্ট্রি। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, কেবল মহারাষ্ট্র নয়, পূর্ব পঞ্জাব, দিল্লি, উত্তর প্রদেশ এবং বাংলাতেও ‘তানাজি’-র ব্যবসার পরিমাণ যথেষ্ট ভাল। রিলিজের দিনে ছবির ব্যবসা ছিল ১৫.১০ কোটি। তার পরেরদিন অর্থাৎ শনিবার ‘তানাজি’-র ব্যবসার পরিমাণ ছিল ২০.৫৭ কোটি টাকা। রবিবার ২৬.০৮ কোটি টাকার ব্যবসা করে ‘তানাজি’-র প্রথম তিনদিনের বক্স অফিস কালেকশন ছিল ৬১.৭৫ কোটি টাকা। তারপর কেটে গিয়েছে আরও তিনদিন। আর রিলিজের ছয়দিন পর অজয় দেবগণের ১০০তম ছবির মোট ব্যবসার পরিমাণ ১০০ কোটি টাকার বেশি।

ফিল্ম ক্রিটিকরাও বলছেন, সময় যত এগোবে ‘তানাজি’-র ব্যবসার পরিমাণ আরও বাড়বে। হয়তো রেকর্ড ভাঙা সময়ে ২০০ কোটির ক্লাবে পৌঁছে যাবে এই ছবি।