এ আর রহমান কন্যার জবাবে চটেছেন তসলিমা

বোরকা নিয়ে মন্তব্য করায় ভারতে নির্বাসিত বাংলাদেশের বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিনের কড়া সমালোচনা করেছিলেন সুরের যাদুকর এআর রহমানের কন্যা খাতিজা রহমান।

এবার তসলিমাও খাতিজার সেই প্রতিক্রিয়ার জবাব দিয়েছেন।

সোমবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে বিষয়টি নিয়ে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক আইডিতে একটি স্ট্যাটাস দেন তসলিমা।

তসলিমা বলেন, ফেসবুকে বা টুইটারে সেদিন বারবার সামনে আসছিল এ আর রহমানের মেয়ে খাতিজার বোরকা পরা ছবি। ভাবছিলাম গান বাজনা নিয়ে থাকা সংস্কৃতিমনস্ক সংসারের শিক্ষিত মেয়েরাও কী করে যে ধর্মান্ধ হয়! সে কারণেই টুইট করা।

তারপর দেখতে হলো খাতিজার রিয়্যাকশন! যে কোনো হিজাবি বা বোরকাওয়ালি যে ভাবে রিয়্যাক্ট করে, সে ভাবেই করেছে-এটা আমার চয়েস, আমি গর্বিত, আমি এম্পাওয়ার্ড’।

তসলিমা বলেন, খাতিজা আরও বললো- আমি যেন গুগল করে ‘সত্যিকার নারীবাদ’ সম্পর্কে জেনে নিই। সে বলতে চাইছে বোরকা পরাই সত্যিকার নারীবাদ। এই বোকা বোকা উত্তর পড়ে মিডিয়া, এমনকি সেক্যুলার মিডিয়াও, উচ্ছ্বসিত। খবরের শিরোনাম লিখেছে, খাতিজা তসলিমাকে ধুয়ে দিয়েছে, খাতিজা তসলিমাকে একহাত নিয়েছে, খাতিজা উচিত জবাব দিয়েছে, ধারালো জবাব দিয়েছে।

তিনি বলেন, সত্যিই কি মনে হয় বোরকা পরা মেয়েরা নারীবাদী? আমাকে গুগল করে ‘সত্যিকার নারীবাদ’ শিখতে বললো এক বোরকাওয়ালি মেয়ে, আর সেটাই চরম বিনোদনের বিষয় হয়ে উঠল সারা উপমহাদেশে!

মিডিয়ার সমালোচনা করে বিতর্কিত এই লেখিকা আরও বলেন, বোরকা ইস্যুটা একটা সিরিয়াস বিতর্কের ইস্যু হতে পারত। সেদিকে গেলই না মিডিয়া। সবাই হাসছে আমার দিকে তাকিয়ে কেমন চমৎকার উত্তর দিয়ে আমাকে ‘কাবু’ করা হলো এই বলে।

যেন আমি মানবতার শত্রু, যেন মেয়েদের সমানাধিকারের জন্য আমার এতকালের লেখালেখি সব ভুল, যেন নারীবিরোধী ধর্ম নিয়ে প্রশ্ন করা আমার ভুল, যেন বোরকাওয়ালিরাই আসল নারীবাদী, যেন ইসলামই নারীর সমানাধিকার নিশ্চিত করে, যেন পুরুষের চার বিয়েই সঠিক, কোরআন যে অবাধ্য নারীকে মারধর করতে বলে, সেটাই সত্যিকারের নারীবাদ। আমিই ভুল।

প্রসঙ্গত গত ১১ ফেব্রুয়ারি তসলিমা খাতিজার একটি ছবি পোস্ট করে টুইটারে লিখেছিলেন– আমি এআর রহমানের মিউজিক খুব ভালোবাসি। কিন্তু যখনই তার কন্যাকে বোরকা পরে দেখি, তখনই সাফোকেটেড লাগে। সাংস্কৃতির পরিবারের একজন শিক্ষিতা নারীও খুব সহজেই মগজ ধোলাই করা যায়, এটি ভেবেই খুব হতাশ লাগে।