লকডাউনে মদের দোকান খোলা রাখার দাবি অভিনেতা ঋষি কাপুরের

‘‌লকডাউনের সময়ে, সন্ধ্যেবেলা মদের দোকান খোলা রাখা উচিত।’‌ টুইটারে এমনই বিতর্কিত পোস্ট অভিনেতা ঋষি কাপুরের৷ 


লকডাউনের মাঝে দেশের অধিকাংশ মানুষের মাথায় যখন দু’‌বেলা পেটের ভাত যোগার করার চিন্তা। সেই সময়ে বলিউডের বিখ্যাত অভিনেতার এমন পোস্টে হালকা সমালোচনার ঝড় তো উঠবেই। তিনি অবশ্য এই প্রসঙ্গে যুক্তি দেখিয়েছেন।

তার মতে, এভাবে মদের দোকান লকডাউনের আওতায় নিয়ে এলে দেশের রোজগারে টান পড়বে। তারা ধাক্কা সামলাতে বেশ বেগ পেতে হবে। এমনিতেও বহু জায়গায় বেআইনিভাবে মদ বিক্রিও হচ্ছে। তিনি অবশ্য আরও বলেছেন, তাকে যেন এব্যাপারে ভুল বোঝা না হয়। তার যুক্তি, এই কোয়ারেন্টিনে থাকতে থাকতে মানুষ ক্রমশ মানসিক অবসাদের শিকার হয়ে যাচ্ছে। তাদের অবসাদ কাটাতে একটু আধটু মদ্য পান করলে কোনও ক্ষতি হবে না। 

পরিচালক কুনাল কাপুর তার কথায় সায় দিয়েছেন। কিন্তু এক নেটিজেনের উত্তর, ‘‌আর যে বাড়িতে পুরুষ মদ খেয়ে এসে স্ত্রীয়ের গায়ে হাত তোলে?‌ আপনার মনে হয়, এখন এটা নিরাপদ?‌’ আরেকজন লিখেছেন, ‘‌এটার বাইরে গিয়ে ভাবুন ঋষিজী। মানুষ খাবারটুকু পাচ্ছে না। আর আপনি বলছেন মদের কথা। কী অদ্ভুত পরামর্শ!‌’ কেউ আবার প্রশ্ন করেছেন, অভিনেতা যথেষ্ট পরিমাণ মদ বাড়িতে এনে রেখেছেন কিনা।‌ 

এরকম কিছু উত্তর আসার পর তিনি সেসবের কড়া জবাবও দিয়েছেন। পরের পোস্টে তিনি বললেন, তার জীবনযাপন বা দেশের ব্যাপারে কেউ কিছু বললে তা মুছে ফেলা হবে। সঙ্গে ‌হুঁশিয়ারিও দিলেন তিনি।