ভেঙে গেল আমির খানের সংসার

আদর্শ জুটি হিনেবেই পরিচিত ছিলেন কিরণ রাও ও আমির খান। তবে শেষ পর্যন্ত টিকলো না তাদের সংসার। দীর্ঘ ১৫ বছর সংসার এক ছাদের নিচে বসবাসের পর সম্পর্কের ইতি টানার ঘোষণা দিয়েছেন এ দম্পতি।

শনিবার সকালে অনলাইনে একটি বিবৃতি জারি করে নিজেদের বিচ্ছেদের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন আমির খান ও কিরণ রাও।

তারা লিখেছেন, এই ১৫ বছরের সুন্দর সফরে আমরা প্রচুর আনন্দ, উচ্ছ্বাস, অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করেছি। ভরসা, ভালবাসা এবং শ্রদ্ধার মধ্যে দিয়ে আমাদের সম্পর্ক বিকশিত হয়েছে। এ বার আমরা জীবনের নতুন একটা অধ্যায় শুরু করতে চলেছি। কিন্তু স্বামী-স্ত্রী হিসেবে নয়, আমাদের সন্তানের মা-বাবা এবং পরিবারের সদস্য হিসেবে।

কিরণ রাও ছিলেন আমির খানের দ্বিতীয় স্ত্রী।  

ভারতের গণমাধ্যমগুলো জানাচ্ছে, হঠাৎ করেই এমন সিদ্ধান্ত নেননি এই তারকা দম্পতি। দীর্ঘদিন ধরেই তাদের মধ্যে এ নিয়ে বোঝাপড়া চলছিল। দাম্পত্য থেকে বেরিয়ে আসার উপায় খুঁজছিলেন তারা।  

আমির-কিরণ জানিয়েছেন, তারা আলাদা থাকলেও ছেলে আজাদের প্রতি কর্তব্য পালন করবেন দুজনেই। তাদের এই বিচ্ছেদের প্রভাব পেশাগত কাজের কোনো ক্ষতি করবে না।  

২০০২ সালে প্রথম পক্ষের স্ত্রী রিনা দত্তের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর ‘লগন’ সিনেমার সেটে কিরণের সঙ্গে আমিরের প্রথম পরিচয় হয়। দীর্ঘদিন ‘লিভ ইন রিলেশন’-এ থাকার পর ২০০৫ সালে তারা বিয়ের করেন। সারোগেসির মাধ্যমে ২০১১ সালে তাদের একটি ছেলেও হয়। তার নাম আজাদ রাও খান।

এদিকে, আমির খান পরকীয়ায় জড়িয়েছেন এমন সংবাদ আসে ২০১৯ সালে। তার সাথে সম্পর্কের গুঞ্জন ছিল ‘দঙ্গল’ খ্যাত অভিনেত্রী ফাতিমা সানা শেখের। এ নিয়ে সে সময় বেশ জলঘোলাও হয়েছিল।