মমতার ‘এপাং ওপাং ঝপাং’ পড়ে সবাইকে হাসালেন শ্রীলেখা

মাঝে মাঝে কবিতা লেখেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। আর কবিতা লেখার জন্য সম্প্রতি মমতাকে ‘বাংলা আকাদেমি পুরস্কার’ প্রদান করা হয়েছে।


মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ‘কবিতা বিতান’ নামক কাব্যগ্রন্থের জন্য ‘বাংলা আকাদেমি পুরস্কার’ দিয়েছে রাজ্যের তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তর। কিন্তু এ ঘটনায় সাহিত্যাঙ্গনে চলছে বিতর্ক, আলোচনা ও সমালোচনা।


এমন পরিস্থিতিন মধ্যেই টালিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র মমতার লেখা দুটি কবিতা আবৃত্তি করলেন। কবিতা পড়ার ভিডিও শেয়ার করেছেন সামাজিক যোগযোগ মাধ্যম ফেসবুকে।


ভিডিওর শুরুতে শ্রীলেখা বলেন, ‘কে বলে বাঙালি শুধুই রবীন্দ্রনাথের লেখা পড়ে। এই তো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলা আকাদেমি পুরস্কারে পুরস্কৃত হলেন তার নিরলস সাহিত্যচর্চা আর সাধনার জন্য।’ এরপর মমতার লেখা দুটি কবিতা পাঠ করেন শ্রীলেখা। প্রথমে পড়েন ‘এপাং ওপাং ঝপাং’। কবিতা শেষ করে বললেন, ‘এ কবিতার গূঢ় অর্থ আছে। নিশ্চয়ই যারা তাকে আকাদেমি পুরস্কার দিয়েছেন, সুবিচার করেছেন।’


এরপর পড়লেন ‘হাম্বা’। পড়া শেষে বললেন, ‘তার যে কত পশুপ্রেম আছে, তা এই কবিতাটায় বোঝা যায়। আমিও তো পশুপ্রেমী।’


শ্রীলেখার এই ভিডিওতে একজন কমেন্ট করেছেন, ‘আমি বাকরুদ্ধ! এতো নোবেল পাওয়ার যোগ্য! আরেকজন লিখেছেন, ‘খুব অনুপ্রাণিত হলাম, এবার থেকে আমিও লিখব কবিতা।’ অপরজন লিখলেন, ‘রবি ঠাকুরের চুরি হয়ে যাওয়া নোবেল এর দুক্কু বাঙালি খুব শিগগিরই ভুলে যাবে। কারণ বাংলায় আবার একটা নোবেল আসছে।’