জন্মদিনেই মারা গেলেন ‘দ্য মনস্টার’ খ্যাত ভালদির সেগাতোর

নিজের ৫৫তম জন্মদিনেই মৃত্যু হলো ‘ব্রাজেলিয়ান হাল্ক’ ও ‘দ্য মনস্টার’ খ্যাত ভালদির সেগাতোর। ২৩ ইঞ্চি বাইসেপ তৈরির জন্য বিপজ্জনক ইনজেকশন নিতেন এই ব্রাজিলিয়ান বডি বিল্ডার ও টিকটক তারকা।


স্ট্রোক ও সংক্রমণের ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও ভালদির সেগাতো বহু বছর ধরেই বাইসেপ ও পিঠের পেশি বাড়ানোর জন্য সিন্থল ইনজেকশন ব্যবহার করতেন। ভালদির সোশ্যাল মিডিয়ায় তার শরীরের রূপান্তরের অনেক ছবি ও ভিডিও শেয়ার করতেন। নিজেকে ‘ভালদির সিন্থল’ নামে পরিচয় দিতেন তিনি। টিকটকে তার ১.৭ মিলিয়ন ফলোয়ার ছিলো।


সেগাতোর অনুপ্রেরণা ছিলো আর্নল্ড শোয়ার্জনেগার এবং হাল্কের মতো কাল্পনিক চরিত্র। ২০১৬ সালে ডেইলি মেইলকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, ‘তারা আমাকে হাল্ক, শোয়ার্জনেগার এবং হি-ম্যান বলে ডাকে এবং আমি এটি পছন্দ করি। আমি আমার বাইসেপ দ্বিগুণ করেছি কিন্তু আমি এটি আরো বড় করতে চাই।’


ভালদিরকে ৫ বছর আগে চিকিৎসকরা সতর্ক করেছিলেন যে তিনি যদি শরীর তৈরি করতে ইনজেকশন ব্যবহার করতে থাকেন তাহলে তিনি স্নায়ুর ক্ষতিসহ বেশকিছু প্রাণঘাতী সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। কিন্তু তারপরেও ইনজেকশন দেওয়া অব্যাহত রাখেন ভালদির। আর একটানা ইনজেকশন নেয়ার ফলে ভালদিরের পেশি ২৩ ইঞ্চি পর্যন্ত বেড়ে যায়।


স্থানীয় এক বাসিন্দা জানান, মৃত্যুর দিন তার শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল, যে কারণে তিনি তার মাকে সাহায্যের জন্য ডাকেন। এরপর ভালদিরকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে রিসেপশন এরিয়াতেই হার্ট অ্যাটাকে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। তথ্যসূত্র: নিউইয়র্ক পোস্ট