বার্সেলোনায় ফিরছেন নেইমার

গ্রীষ্মের দলবদলের মৌসুমে অল্পের জন্য বার্সেলোনায় ফিরতে পারেননি নেইমার জুনিয়র। বার্সেলোনার দেয়া তিন দফার প্রস্তাবই ফিরিয়ে দিয়েছে পিএসজি। তবে এরপরও বার্সেলোনার তারকারা আশাবাদী আগামী মৌসুমেই বার্সেলোনায় ফিরবেন ব্রাজিলিয়ান তারকা।

২০১৭ সালে যখন বার্সা ছেড়ে পিএসজিতে পাড়ি জমান নেইমার, তাকে সাবধান করেছিলেন পিকে। তবে তার কথা কানে তোলেননি নেইমার। কিন্তু ২ মৌসুম পরেই নেইমার নিজের ভুল বুঝতে পারেন। ফেরার জন্য মরিয়া চেষ্টা চালাতে গিয়ে এমনকি ট্রান্সফার ফির একটা অংশ নিজের পকেট থেকেও দিতে চেয়েছিলেন তিনি। তবে বার্সার কোনো প্রস্তাবেই রাজি হয়নি ক্লাবটির কাতারি মালিকপক্ষ।

এদিকে নেইমারকে ফিরিয়ে আনতে বার্সার সিনিয়র খেলোয়াড় বিশেষ করে মেসি, লুইস সুয়ারেস এবং পিকে মিলে ক্লাব সভাপতি হোসে মারিও বার্তমেউকে চাপ দিয়েছিলেন। এমনকি ক্লাবের খেলোয়াড়রা নাকি নেইমারকে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া সহজ করতে দেরিতে বেতন নিতেও রাজি ছিলেন। এমনটাই জানিয়েছেন পিকে।

পিএসজিতে যাওয়ার আগে নেইমারকে সাবধান করেছিলেন পিকে। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘এল লারগুয়েরো’কে তিনি বলেন, ‘নেইমারের বার্সায় ফিরে আসা? ফুটবলে যেকোনো কিছুই হতে পারে। আমরা তাকে (নেইমার) আগেই বলেছিলাম: তুমি সোনার তৈরি জেলে যাচ্ছো। তবে তার জন্য ফেরার দরজা খোলাই আছে।

নেইমার সত্যিই ফিরতে মরিয়া ছিলেন কি না এমন প্রশ্নের জবাবে পিকে বলেন, বলা হয়, সে বার্সেলোনায় ফিরতে চেয়েছিল। কথা সত্য। আমরা বার্তমেউকে (বার্সা প্রেসিডেন্ট) বলেছিলাম, নেইমারের ফেরার রাস্তা পরিষ্কার করতে যদি আমাদের বেতনের তারতম্য করতে হয়, আমরা তাতেও রাজি।

এই তারকা আশাবাদী সামনের মৌসুমেই বার্সায় ফিরবেন নেইমার। ক্লাব সভাপতি নাকি তাদের কথা দিয়েছেন নেইমারকে ফেরাতে সামনের মৌসুমে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবে কাতালান ক্লাবটি। তাছাড়া পরের মৌসুমে নেইমারের ট্রান্সফার ফিও কমে যাবে। ফলে তাকে ফেরাতে খুব বেশি বেগ পেতে হবে না কাতালানদের।