করোনার ভয়ে 'পালিয়েছেন' নেইমার

ফ্রান্সে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন প্রায় ২০০ জনের কাছাকাছি। আক্রান্ত প্রায় আট হাজার। সে তুলনায় ব্রাজিলে করোনাভাইরাস এখনো তেমন ছোবল তুলতে পারেনি। এখন পর্যন্ত সেখানে আক্রান্ত পৌনে চার শ-র মতো মানুষ, মারা গেছেন একজন। এই সময়ে ফ্রান্সের চেয়ে ব্রাজিলই তো তুলনামূলক নিরাপদ!

নেইমার সে হিসেবে একেবারে ঠিক কাজটিই করেছেন। করোনার দাপটে ফরাসি লিগ বন্ধ হয়ে আছে বেশ কদিন হলো, কবে আবার শুরু হবে তা শুধু ভবিষ্যৎই জানে। একে তো খেলা নেই, তারওপর গৃহবন্দী হয়ে কাটছে প্যারিসিয়ানদের দিনগুলো। এমন শঙ্কার সময়ে আর প্যারিসে থেকে কী করবেন, সোমবার নেইমার উড়াল দিয়েছেন ব্রাজিলের উদ্দেশে।

ফরাসি দৈনিক লা পারিসিয়েনকে উদ্ধৃত করে স্প্যানিশ দৈনিক মার্কা আজ সে খবর জানিয়ে লিখেছে, তাঁর অন্য সতীর্থরা যখন প্যারিসেই দিন কাটাচ্ছেন, তখন নেইমার ‘পালিয়েছেন’, উড়াল দিয়েছেন ব্রাজিলের উদ্দেশে।

পিএসজির অবশ্য এখানে কিছু করার নেই। নেইমারকে প্যারিসে থাকতে বাধ্য করতে পারত না ক্লাবটি, সেই এখতিয়ার তাদের নেই। তবে প্যারিসে যাঁরা আছে, তাঁদের করোনাভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করার, প্রাণঘাতী ভাইরাসটিকে বাড়ির দরজার বাইরে রাখার সব সতর্কতামূলক পদ্ধতি বলে দিয়েছে ক্লাব।