প্রতিদিন সকালে এই জিনিসটি খান আর দেখুন জাদু

রক্তস্বল্পতায় কিশমিশ যে উপকারী, সেটা অনেকেই জানেন। কারণ, কিশমিশ শরীরে নতুন রক্ত তৈরি করে। কিন্তু, এটা জানা আছে কি, অন্তত টানা চার দিন কিশমিশের জল পান করলে, পেট একদম পরিষ্কার হয়ে যাবে।

পেটের গন্ডগোল থাকবে না। সেইসঙ্গে ভরপুর এনার্জি পাবেন। অনেক ডাক্তারও রোগীকে ওষুধের পাশাপাশি কিশমিশ প্রেসক্রাইব করেন।

১) কিসমিসে পর্যাপ্ত পরিমাণে কার্বহাইড্রেট থাকে। কিসমিস ভেজানো পানি তাই মহিলাদের পক্ষে উপকারী। মহিলারা রক্তস্বল্পতায় ভোগেন। তাই চিকিত্‍সকরা তাঁদের কিসমিস খাওয়ার পরামর্শ দেন।

২) কিসমিস ভেজানো পানি খেলে কিডনির নানা সমস্যা থেকে দূরে থাকা যায়। লিভারও সুস্থ থাকে।

৩) কিসমিসে পটাশিয়াম থাকে, যা হার্টকে ভালো রাখে। শরীরে খারাপ কোলেস্টেরলকেও দূরে রাখে কিসমিস।

৪) যাঁরা নিয়মিত পেটের ও হজমের সমস্যায় ভোগেন, তাঁদের জন্য এই টোটকা খুবই উপকারী। এতে পেট পরিষ্কার থাকে