এই শীতে প্রতিদিন ১ চামচ মধু খেলে যা হবে

একটু একটু করে ক্রমশ জাঁকিয়ে বসছে শীত। আর ঠান্ডা পড়তেই সর্দি-কাশির সমস্যা শুরু হয়েছে ঘরে ঘরে। অনেকেই সর্দি-কাশিকে সাধারণ সমস্যা ভেবে উপেক্ষা করেন। কিন্তু এতে বিপদ আরও বাড়তে পারে। সময় মতো এই সমস্যার চিকিৎসা না করালে শ্বাসযন্ত্রে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে। তাই আজ জেনে নেওয়া যাক এমন কিছু ঘরোয়া উপায় যা বুকে কফ জমা বা সর্দি-কাশির সমস্যার উপশমে অত্যন্ত কার্যকরী।

প্রতিদিন এক চামচ করে মধু খাওয়ার অভ্যাস করুন। মধু হচ্ছে উচ্চ ওষধিগুণসম্পন্ন একটি ভেষজ তরল। নিয়মিত মধু খাওয়ার অভ্যাস আপনার শ্বাসনালীর নানা সমস্যা দূরে রাখবে এবং সেই সঙ্গে সর্দি-কাশির সমস্যাও।

গলা খুসখুসে ভাব দূর করতে ব্যবহার করা হয় আদা চা। দু’ কাপ জলে আদা কুচি দিয়ে ফুটিয়ে নিয়ে সামান্য মধু মিশিয়ে খেলেই খুসখুসে ভাব থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। কারণ, আদা-মধুর অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান গলার গ্ল্যান্ড ফুলে যাওয়া কমায় এবং ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণ থেকে রক্ষা করে।

সমপরিমাণ লেবুর রসে মধুর মিশ্রণ গলার ভিতরের সংক্রমণ কমায়।

সর্দি-কাশির সমস্যার কারণে যদি আপনার নাক বন্ধ থাকে তাহলে একটি কাজ করুন। সামান্য উষ্ণ উষ্ণ লবণ পানি নাক দিয়ে টানার অভ্যাস করুন। নাকের একপাশ দিয়ে টেনে অন্য পাশ দিয়ে বের করার চেষ্টা করুন। এতে জমে থাকা মিউকাস সহজেই বের হয়ে যাবে এবং সর্দি-কাশির সমস্যাও দ্রুত কমে যাবে।

চায়ের পরিবর্তে উষ্ণ উষ্ণ পানিতে লেবুর রস মিশিয়ে প্রতিদিন এই মিশ্রণ পানের অভ্যাস করুন। এছাড়াও গ্রিন-টি পানের অভ্যাস করতে পারেন। উপকৃত হবেন।