আমলকির রসের সাথে মধু মিশিয়ে খেলে যা হবে

আমলকি শরীরের রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা বাড়িয়ে তোলে। প্রতিদিন একটা কাঁচা আমলকি খাওয়া শরীরের জন্য খুব ভালো।

এতে রয়েছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন সি, পলিফেনল ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস।

আমলকির জুস বানাতে পারেন। গোলমরিচের গুঁড়ো ও আমলকি ভাল করে ব্লেন্ড করে। আক কাপ জল মিশিয়ে ফের ব্লেন্ড করুন। এর পর ছেঁকে নিন।

এই জুস ফ্রিজে রেখে এক চামচ করে দিনে তিন থেকে চার বার খান।

আমলকি চুলের টনিক হিসেবে কাজ করে এবং চুলের পরিচর্যার ক্ষেত্রে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। এটি কেবল চুলের গোড়া মজবুত করে তা নয়, এটি চুলের বৃদ্ধিতেও সাহায্য করে। এটি চুলের খুসকির সমস্যা দূর করে ও পাকা চুল প্রতিরোধ করে।

আমলকির রস কোষ্ঠকাঠিন্য ও পাইলসের সমস্যা দূর করতে পারে। এছাড়াও এটি পেটের গোলযোগ ও বদহজম রুখতে সাহায্য করে।

এক গ্লাস দুধ বা পানির মধ্যে আমলকি গুঁড়ো ও সামান্য চিনি মিশিয়ে দিনে দু’বার খেতে পারেন। এ্যাসিডেটের সমস্যা কম রাখতে সাহায্য করবে।

আধা চূর্ণ শুষ্ক ফল এক গ্লাস পানিতে ভিজিয়ে খেলে হজম সমস্যা কেটে যাবে। খাবারের সঙ্গে আমলকির আচার হজমে সাহায্য করে।

প্রতিদিন সকালে আমলকির রসের সঙ্গে মধু মিশে খাওয়া যেতে পারে। এতে ত্বকের কালো দাগ দূর হবে ও ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে।