ব্রেকআপ হলে যা যা করবেন

প্রতি ২৪ ঘন্টায় গড়ে সারা পৃথিবীতে ২ কোটি ৩ লক্ষ ৯২ হাজার মানুষ ব্রেক আপ করে থাকে। আমাদের কাছে ব্রেকআপ বিষয়টি ভাত মাছের মত হয়ে গেছে। তবে সবার জন্য বিষয়টি স্বস্তিকর না। কারও কারও জন্য অস্বস্তিকরও। অনেকে বাধ্য হয়েই সঙ্গীর সাথে বিচ্ছেদ করে। এসব মানুষকে একসময় হতাশা চেপে ধরে।

প্রশ্ন হলো হতাশা বা একাকীত্ব অনুভব করলে কীভাবে এই অবস্থা থেকে বের হবেন। তার উত্তর মিলবে এই প্রতিবেদনে।


১) যদ ব্রেকআপ হয় তাহলে প্রিয় মানুষটিকে এড়িয়ে চলুন এবং প্রিয় মানুষটির সকল জিনিসপত্র থেকে দূরে থাকুন। মোবাইলের গ্যালারি থেকে সকল প্রকার ছবি বা ভিডিও ডিলিট করে ফেলুন। বিরহ বা কষ্ট বিদারক গান বা ছবি এবং মুভি দেখা বন্ধ করুন। নিজেকে বোঝান, নিজেকে সময় দিন, নিজেকে ভালবাসুন।

২) নিয়মিত রাত ৯ টা ১০ টার মধ্যে ঘুমিয়ে পড়ুন এবং ফজরের নামাজ বা প্রার্থণা করার চেষ্টা করুন। নিয়মিত স্কুল কলেজ ও অফিস আদালতে যাবেন, সবার সাথে মিশতে থাকুন। তবে ব্রেকআপের কথা মাথায় আনা যাবে না। যদিও মাথায় চলে আসে তাহলে মন অন্যদিকে ঘুড়িয়ে ফেলার চেষ্টা করুন।

৩) নিয়মিত খাওয়া দাওয়া করুন এবং যে খাবারটি বেশি খেতে পছন্দ করেন সেটা বেশি করে খাবেন। তবে প্রিয় মানুষটির সাথে যে খাবার গুলো খেতেন সেগুলো পরিহার করুন।

৪) যে জায়গা গুলোতে আপনার প্রিয় মানুষের স্মৃতি জড়িয়ে আছে সেই জায়গা গুলোতে না যাওয়ার চেষ্টা করুন। বুঝতে শিখুন, যা হারাবার তা হারিয়ে গেছে। মিছে মিছে তার জন্য সময় নষ্ট করবেন না।

৫) ভুলেও কোন প্রকার নেশাগ্রস্থ দ্রব্যাদির কাছে যাবেন না। মানুষ নেশা গ্রস্থ হলে তার পুরোনো কথা বেশি মনে পরে। তাই নেশা গ্রহন না করে বরং নেশার বিরুদ্ধে কাজ করুন।

৬) সবসময় শুয়ে কাটাবেন না, বিকালে বাড়ীর ছাদে বা খোলা মাঠে খেলা ধুলা করুন। ছোট বাচ্চাদের সাথে সময় কাটাতে শিখুন, তাদের সাথে হাসা হাসি করুন। পারলে গুরতে বের হয়ে পড়ুন।

৭) বই পড়ুন, প্রচুর বই কিনুন। বই মানুষের সাথে কথা বলে তাই ভালো মনিষিদের জীবনী পড়ুন এতে অনেক কিছু জানতে পারবেন। তবে হ্যা, ছ্যাকা খাওয়া কোন বই পড়বেন না। এটা আপনার অতীতকে আপনার সামনে তুলে ধরবে।

৮) বন্ধুদের সাথে বা পরিবারের সাথে বেড়িয়ে পড়ুন কোথাও আড্ডা বা ঘুরতে যাওয়ার জন্য। বেশ কিছু ফানি ছবি তুলুন নিজের সেই ছবি গুলো নিজে নিজেই দেখুন আর হাসুন। আর বলুন আমি অনেক কিছু করবো।

১০) সর্বশেষ, প্রিয় মানুষটিকে ঘৃণা করতে শিখুন। ধারনা করুন আপনার জায়গাতে আজ অন্য কেউ। এটা ভেবে প্রচুর পরিমানে ঘৃণা করুন। আর হ্যা, প্রিয় মানুষটির সাথে সকল যোগাযোগের মাধ্যম বন্ধ করে দিন।

পরামর্শঃ

ব্রেকআপ হতে পারে এটা স্বাভাবিক। তবে একটু ভাবনা চিন্তা করে একটি সর্ম্পকে আবদ্ধ হওয়া উচিত্‍। এতে আপনি বুঝতে পারবেন কোনটা সঠিক আর কোনটা ভুল। আপনি ভুল করলে এই ভুলের মাশুল আপনাকেই গুনতে হবে। তাই যা কিছু করবেন খুব ভেবে চিন্তে করবেন।