কালবৈশাখী ঝড়ে বায়তুল মোকাররমের প্যান্ডেল ভেঙ্গে নিহত ১

হঠাৎ কালবৈশাখী ঝড়ের কবলে ভেঙে গেছে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ পাশের মুসল্লিদের নামাজ আদায় করার জন্য তৈরি করা প্যান্ডেল। এতে একজন নিহত ও অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। আহত সবাইকে উদ্ধার করে তাৎক্ষণিকভাবে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টা ১৫ মিনিটে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে উদ্ধার কাজ চালাচ্ছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া বলেন, বায়তুল মোকাররম মসজিদ থেকে আহতদের মধ্যে শফিকুল (৩৮) নামে একজন মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। রাজধানীর পোস্তগোলা এলাকার বাসিন্দা তিনি। আহত লোকজনের মধ্যে দুজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যরা চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছেন।

ইফতারের পরপরই হঠাৎ করে তুমুল ঝড়-বৃষ্টিতে প্রায় লণ্ডভণ্ড অবস্থা হয় রাজধানীর বেশ কিছু এলাকা। শুক্রবার ইফতারের পর মাগরিবের নামাজ চলাকালীন সময় থেকে শুরু হয় ঝড়ো হাওয়া, সঙ্গে থেমে থেমে বৃষ্টি।

তুমুল বাতাসে উড়ে যেতে দেখা যায় অধাপাকা ঘর-বাড়ি, দোকানপাটের টিনের চাল। এসময় রাস্তায় রিকশা-সিএনজিসহ ছোট যানবাহনের চলাচল বন্ধ করে নিরাপদ আশ্রয়ে যেতে দেখা যায় চালকদের।

আবহাওয়া অধিদফতর বলেছে, সন্ধ্যা ৭টা ২ মিনিটে ঢাকায় ৬৫ কিলোমিটার বেগে কালবৈশাখী বয়ে যায়। তবে সন্ধ্যা ৭টা ৫ মিনিটে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ঝড়ের গতিবেগ ছিল ৯৩ কিলোমিটার, এটাই ছিল ঢাকায় ঝড়ের সর্বোচ্চ গতিবেগ।