বন্যাকবলিত এলাকার জন্য সায়মা ওয়াজেদের তৈরি নকশার নৌকা

বন্যাকবলিত এলাকার মানুষকে ঘরসহ নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কন্যা সায়মা হোসেন ওয়াজেদের করা নকশার নৌকা তৈরি করতে প্রকল্প নিয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়।

এ ছাড়া জেলা প্রশাসনের নৌকা তৈরির অর্থ বরাদ্দ বৃদ্ধি করে তিন লাখ টাকার প্রস্তাবে সম্মতি দিয়েছে সরকার।

জেলা প্রশাসক সম্মেলনের তৃতীয় দিন মঙ্গলবার সচিবালয়ে তৃতীয় কার্যঅধিবেশন শেষে এ কথা জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান। এ সময় মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শাহ কামাল উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বন্যার সময় বন্যাকবলিত জনগণকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরানোর জন্য ডিসিরা নৌকার প্রস্তাব দিয়েছেন, আমরা নৌকার জন্য আগে এক লাখ টাকা বরাদ্দ দিয়েছিলাম। তারা তিন লাখ টাকা বরাদ্দ চেয়েছেন। আমরা সেই প্রস্তাবে সম্মতি দিয়েছি।

এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রীর সুযোগ্য কন্যা সায়মা হোসেন আমাদের একটি প্রস্তাব দিয়েছেন, একটি ডিজাইন দিয়েছেন, স্টেমেট দিয়েছেন ১০ লাখ টাকার একটি নৌকা।যে নৌকায় বন্যাকবলিত জনগণ তাদের মালামাল এমনকি ঘর পর্যন্ত অন্য জায়গায় সরিয়ে নিতে পারবেন, সেটিও আমরা প্রকল্প গ্রহণ করছি।’

পরে শাহ কামাল সাংবাদিকদের বলেন, বন্যা আক্রান্ত হয় এমন ৩৫ জেলায় সায়মা ওয়াজেদের প্রস্তাবিত ওই নৌকা একটি করে দেয়া হবে। যে নৌকার আকৃতি বেশ বড় এবং এতে ঘরসহ মানুষ ও প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ওঠানো যাবে। ডিসিরা বন্যা-সাইক্লোনসহ দুর্যোগে কাজ করতে স্পিডবোটের সংখ্যা বাড়ানো ও সারা বছর জ্বালানি সরবরাহ নিশ্চিত করার জন্য প্রস্তাব করেছেন।

এ ছাড়া ডিসিরা জেলা-উপজেলা থেকে ত্রাণ সরবরাহের প্রস্তাব দিয়েছেন জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা এরই মধ্যে ৬৪ জেলায় ৬৬ ত্রাণ গুদাম নির্মাণের কাজ শুরু করেছি। এগুলোর কাজ শেষ হলে আমরা জেলা প্রশাসকের অধীনে ত্রাণসামগ্রী জেলাপর্যায়ে রাখতে পারব।