কক্সবাজারে সমুদ্রে ভাসছে লাশ, উদ্ধার ৬ দেহ

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্টে একটি ট্রলার থেকে দুইজন ও ট্রলারের পাশ থেকে চারজনসহ মোট ছয়জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে নিহতরা সবাই জেলে। তবে তাদের পরিচেয় জানা যায়নি।

বুধবার (১০ জুলাই) ভোরে ওই ট্রলারটি পাওয়া যায়।

সদর থানার ওসি খায়রুজ্জামান জানান, রাতে বীচে থাকা কর্মীরা সৈকতে মরদেহ ভেসে আসার খবর দিলে পুলিশ সী-গাল পয়েন্টে গিয়ে ভোরে চার মরদেহ উদ্ধার করে। পরে সকাল পৌনে ৮টার দিকে ভেসে আসে আরো দুটি মরদেহ। তারা রোহিঙ্গা নাকি জেলে এটি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তাদের একটু অদূরে একটি মাছ ধরার নৌকাও উদ্ধার হয়। নৌকাটিতে মাছ ধরার জালও রয়েছে। তাই নিহতরা জেলেও হতে পারে বলে ধারণা ওসির।

নিহতদের মরদেহগুলো কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। তাদের পরিচয় শনাক্তের কাজ চলছে বলে উল্লেখ করে ওসি খায়রুজ্জামান আরও বলেন, মরদেহের সংখ্যা বাড়তে পারে। সাগরে আরো ভাসমান মরদেহ দেখা যাওয়ার তথ্য এসেছে। পুলিশের টিম ঘটনা স্থলে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সমুদ্রে চলছে মাছ ধরার নিষেধাজ্ঞা। তবুও পেটের তাগিদে অনেক জেলে দলবেধে চুরি করে গভীর রাত কিংবা ভোররাতে সাগরের উপকূলের কাছাকাছি মাছ আহরণে যায়। হয়ত জেলের দল রাতের আঁধারে ছোট বোট নিয়ে সাগরে মাছ ধরতে নামে। বৈরি আবহাওয়ায় বোটটি উল্টে তাদের মৃত্যু হতে পারে।