সমঝোতা ছাড়াই শেষ শিক্ষার্থী-ভিসি বৈঠক, আন্দোলন চলবে

সমঝোতা ছাড়াই শেষ হলো বুয়েট শিক্ষার্থীদের সঙ্গে উপাচার্য অধ্যাপক সাইফুল ইসলামের বৈঠক। আবরার ফাহাদ হত্যা কেন্দ্র করে  তোলা প্রধান দাবিগুলো উপাচার্য মেনে নিলেও তার বাস্তবায়ন দেখে আন্দোলন থেকে সরতে চান শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা বলছেন, হলগুলোতে এখনও দলীয় নেতাকর্মী রয়েছে। ১৯ জন সাময়িক বহিষ্কার হলেও তাদের স্থায়ী বহিষ্কার করা হয়নি। এছাড়া সাংগঠনিক রাজনীতি নিষিদ্ধের ঘোষণা হলেও আবারও যে শুরু হবে না তার নিশ্চয়তা তারা পাচ্ছেন না। এ কারণে আগামী ১৪ অক্টোবর ভর্তি পরীক্ষা না নেওয়ার পক্ষে মত দেন তারা।

শুক্রবার (১১ অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৫টায় বুয়েট অডিটোরিয়ামে ফাহাদ স্মরণে এক নীরবতা পালনের মধ্যদিয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বৈঠক শুরু হয়। এতে বুয়েটের ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক মিজানুর রহমান, ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন অধ্যাপক ইয়াজ হোসেন, শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক মাসুদসহ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরা উপস্থিত আছেন।

আলোচনার শেষ দিকে শিক্ষার্থীরা বলেন, দশ দফা দাবির মধ্যে যেসব দাবি বুয়েট প্রশাসনের এখতিয়ারে তার বাস্তবায়ন না দেখা পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। কোনো ধরনের একাডেমিক কার্যক্রম চলবে না।

এসময় উপাচার্য বলেন, তোমরা আমার সন্তান। বাবা হিসেবে একটি আবেদন অন্তত পক্ষে আমাদের ইজ্জতটা মাটিতে লুটাবে না। ভর্তিপরীক্ষাটা নিতে দাও।

শিক্ষার্থীরা মনে করেন, ক্যাম্পাস এখনও অনিরাপদ। তাই ক্যাম্পাসে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে নতুনদের বিপদের মুখে ফেলতে চান না তারা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, ডিএসডব্লিউ পরিচালক ও শিক্ষক সমিতির সভাপতি জানান, স্থায়ী বহিষ্কার করা হলে পরে আদালতে হেরে যেতে হয়। এবার যাতে হেরে যেতে না হয়, সেজন্য আইনজীবীদের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় তদন্ত কমিটি করেছে, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে তদন্ত কমিটি কাজ শুরু করবে।’

হলগুলো রাজনৈতিক নেতাদের দখলমুক্ত করার ব্যাপারে ডিএসডব্লিউ পরিচালক বলেন, ‘যাদের থাকার বৈধতা নেই, তাদের বের করে দেওয়া হবে। প্রয়োজনে আজকেই হলগুলোতে ক্লিনিং অভিযান হবে।’

তবে এসব আশ্বাস মানতে চাচ্ছেন না শিক্ষার্থীরা। তারা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে সবশেষে জানান, ১০ দফার মধ্যে যেগুলো প্রশাসনের এখতিয়ারে রয়েছে সেগুলোর দৃশ্যমান অগ্রগতি না হলে অ্যাকাডেমিক কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। তবে প্রশাসনিক কার্যক্রম চলবে। ভর্তি পরীক্ষা অ্যাকাডেমিক কার্যক্রমের মধ্যে থাকায় সেটিও বন্ধ থাকবে।