আমাকে বাদ দিলে সেটা মেনে নেব: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা ছাড়া আওয়ামী লীগে কেউই অপরিহার্য নয়। এমনকি আমি নিজেও না। এখন যদি শেখ হাসিনা আমাকে বাদ দেয় তাহলে সেটা মেনে নিতে হবে।

শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) সকালে ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগে একমাত্র শেখ হাসিনা অপরিহার্য। তাকে থাকতেই হবে। কারণ শেখ হাসিনা দেশকে যত দূর নিয়ে গেছেন, দেশের মানুষের মধ্যে যে আশা জাগিয়েছেন তাতে তার কোনো বিকল্প নেই। দলকেও শক্তিশালী করে গড়ে তুলেছেন। এ কারণেই শেখ হাসিনা অপরিহার্য।

আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের সম্মেলনের প্রস্তুতি জোরেই চলছে। যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলনের পরপরই মূল দলের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্থাপিত একটি মঞ্চেই সব সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আওয়ামী লীগের সম্মেলনও এই মঞ্চেই অনুষ্ঠিত হবে। এবারও ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নৌকা আকৃতির মঞ্চ তৈরি করা হচ্ছে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের জাতীয় কাউন্সিলে বিএনপিসহ নিবন্ধিত সব রাজনৈতিক দলকে দাওয়াত করবে। ১৪ দলকেও দাওয়াত দেয়া হবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, যেহেতু মুজিব বর্ষ কালারফুল করা হবে সেহেতু এবার সম্মেলন তেমন কালারফুল হবে না। এ ছাড়া বিদেশিদেরও দাওয়াত করা হবে না। কারণ মুজিব বর্ষ পালনের মূল অনুষ্ঠানে অনেক বিদেশি অতিথিকে দাওয়াত দেয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, কাউন্সিলে যে পরিমাণ কাউন্সিলর থাকবে তার সমপরিমাণ ডেলিগেট থাকবে। দলের গঠনতন্ত্র ও ঘো্রষণাপত্রে সংশোধন, সংযোজন ও বিয়োজনের জন্য জেলা-উপজেলা পর্যায়ে চিঠি দেয়া হয়েছে। তারা তাদের চিঠিতে মতামত জানিয়ে দিতে পারেন।