সরকার জোর করে খালেদা জিয়াকে আটকে রেখেছে: ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেছেন, বর্তমান সরকার জোর করে খালেদা জিয়াকে আটকে রেখেছে। তারা (সরকার) চায় না খালেদা জিয়া জেল থেকে বাইরে আসুক।

বুধবার (২০ নভেম্বর) সকালে ঠাকুরগাঁওয়ের কালীবাড়িতে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এমন অভিযোগ করেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, যে অভিযোগে খালেদা জিয়াকে আটক করে রাখা হয়েছে তা একটি সাজানো মামলা। এই মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন পাওয়ার যে আইনগত অধিকার রয়েছে তা থেকেও তাকে বঞ্চিত করা হয়েছে।

খালেদা জিয়াকে একজন জনপ্রিয় নেত্রী উল্লেখ করে বিএনপির সিনিয়র এ নেতা বলেন, এই সরকার তাকে আটকে রেখে ভুল কাজ করছে। যদি তিনি জেল থেকে বেরিয়ে আসতেন তাহলে বর্তমানে দেশে যে সংকট রয়েছে তা কাটিয়ে ওঠা যেত। সরকার খালেদা জিয়ার সঙ্গে আলাপ-আলোচনা শুরু করলে এই সংকট থেকে দেশ ও জাতি মুক্ত হবে।

বিএনপির মহাসচিব আরো বলেন, এই সরকার গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা ভেঙে দিয়ে অভিনব পদ্ধতিতে ছদ্মবেশে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েম করেছে। ফলে রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানগুলো ভেঙে পড়েছে। ধ্বংস হয়েছে গণতন্ত্র ও গণতান্ত্রিক এবং সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠা ও এর সকল কাঠামো। এতে শুধু বিএনপি বা আ.লীগ নয়, পুরো দেশ ও জাতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

এ সময় জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সল আমীন, সহ-সভাপতি নূরে সাহাদাত স্বজনসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।