ফের ভয়াবহ দুঃসংবাদ দিল আবহাওয়া অধিদপ্তর

হিমালয়ের পাদদেশ থেকে আসা ঠান্ডা বাতাসের প্রভাবে কক্সবাজার ও পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাড়া দেশের প্রায় সব এলাকায় শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে।

আজ সোমবারও (২৭ জানুয়ারি) ওই ঠান্ডা বাতাসের প্রবাহ বয়ে যেতে পারে। 

তবে আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে তাপমাত্রা কিছুটা বাড়তে পারে। আগামী বুধবার থেকে দেশের বিভিন্ন স্থানে শুরু হতে পারে মৃদু থেকে মাঝারি বৃষ্টি। ৩২ জেলায় এ বৃষ্টি পরদিনও থাকতে পারে।

এই বৃষ্টির কথা চিন্তা করে আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে একটি বিশেষ কৃষি আবহাওয়া সতর্কবার্তা দেওয়া হয়েছে। সেখানে কৃষকদের জন্য পরামর্শ হিসেবে বলা হয়েছে, সেচ, সার ও বালাইনাশক ব্যবহার বন্ধ রাখতে হবে। 

পরিপক্ব সবজি ও ফল সংগ্রহ করে ফেলতে হবে। বৃষ্টির সময় জমিতে যাতে পানি জমতে না পারে, সে জন্য নালা তৈরি করে দিতে হবে। আইল উঁচু করে দিতে হবে। দণ্ডায়মান ফসলের জন্য বিশেষ খুঁটির ব্যবস্থা করতে হবে।

আবহাওয়াবিদ মনোয়ার হোসেন বলেন, একটি বড় মেঘমালা ভারত হয়ে বাংলাদেশের দিকে এগিয়ে আসছে। আগামী বুধ ও বৃহস্পতিবার বৃষ্টি হওয়ার পর শুক্রবার তাপমাত্রা কিছুটা বাড়তে পারে। তারপর আরেক দফা তাপমাত্রা কমতে পারে।

গতকাল দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় ৬ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রাজধানীর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১২ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।