তিন করোনা রোগী শনাক্ত, কেরানীগঞ্জের ১ হাজার বাড়ি লকডাউন

কেরানীগঞ্জের তিনজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় তিনটি এলাকার প্রায় এক হাজার বাড়ি লকডাউন করেছে উপজেলা প্রশাসন।

সেগুলো হলো- জিনজিরা চর রঘুনাথপুর, জিনজিরাবাগ ও শুভাঢ্যা পূর্বপাড়া হিজলতলা।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, গত শনিবার তিনজনের রক্তের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। আজ তাঁদের পরীক্ষায় ফল পজিটিভ আসে।

এদিকে আজ বিকেলে কেরানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা উপজেলা প্রশাসনের সহায়তায় অপর দুই ব্যক্তিকে রাজধানীর কুয়েত বাংলাদেশ মৈত্রী হাসপাতালে পাঠিয়েছেন। এ ঘটনায় উপজেলা প্রশাসন কেরানীগঞ্জের জিনজিরা চর রঘুনাথপুর, জিনজিরাবাগ ও শুভাঢ্যা পূর্বপাড়া হিজলতলা এলাকার করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের বাসায় তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে এবং লাল পতাকা টানিয়ে দিয়েছে। পাশাপাশি এই তিনটি এলাকার প্রায় এক হাজার বাড়ি লকডাউন করেছে উপজেলা প্রশাসন।

কেরানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মীর মোবারক হোসেন বলেন, এই তিন ব্যক্তির সংস্পর্শে আসা সবাইকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে।

কেরানীগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি (কেরানীগঞ্জ সার্কেল) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান সোহেল বলেন, করোনাভাইরাস বিস্তার রোধে এই তিন এলাকা লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। এসব এলাকার কারও খাদ্যসামগ্রী ও ওষুধ প্রয়োজন হলে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাঁদের বাড়িতে তা পৌঁছে দেওয়া হবে। তবে কেউ বাড়ির বাইরে যেতে পারবে না। এই ব্যাপারে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী মাইনুল ইসলাম বলেন,  ‍লকডাউনে থাকা এলাকাবাসীর খাদ্যসামগ্রী ও অন্যান্য সমস্যায় আমাদের জানালে আমরা ব্যবস্থা নেব।