কেমন আছেন খালেদা জিয়া?

কারামুক্তির পর নিজের বাসভবন ফিরোজায় সময় কাটছে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে দলের শীর্ষ নেতা ও স্বজনরা তার চিকিৎসার দাবি জানিয়ে এলেও করোনার কারণে এখন আর সেই পথে কেউ যাচ্ছেন না। দলীয় নেতা ও চিকিৎসকরা বলছেন, খালেদা জিয়া পারিবারিক পরিবেশে ‘স্বস্তিতেই’ আছেন। তবে, নিয়মিত চিকিৎসা বন্ধ রয়েছে বলেও তারা জানান।

প্রসঙ্গত, গত ২৫ মার্চ শর্তসাপেক্ষে কারামুক্তির পর খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় গঠিত মেডিক্যাল টিমের পরামর্শে  তিনি ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। এরপর করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ  হওয়ায় এখন স্বেচ্ছা কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন।

দলীয় সূত্র জানায়, এই সময় তিনি পরিবারের সদস্যদের বাইরে দলের কারও সঙ্গে দেখা করছেন না। শুধু লন্ডনপ্রবাসী বড় ছেলে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সঙ্গে কথা বলছেন। তবে, দলীয় কোনো নেতাকর্মীর সঙ্গে মুঠোফোনে রাজনৈতিক বিষয়ে কোনও ধরনের আলাপ আলোচনা হচ্ছে না।

তবে, মেডিক্যাল টিমের সদস্য বিএনপি'র ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন ও তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ডা. মামুন মাঝে মাঝে সাক্ষাতে যান।

এই প্রসঙ্গে ডা. জাহিদ হোসেন বলেন, ‘খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা আগের মত। ডায়বেটিস অনিয়ন্ত্রিত, ব্যাথাও আগের মতো।’ তিনি বলেন, `এই পরিস্থিতির শেষ না হলে নতুন করে কোনও ধরনের চিকিৎসা শুরু করা যাচ্ছে না। তাকে যে ধরনের চিকিৎসা দেওয়া দরকার এই মুহূর্তে আমরা সে ধরনের চিকিৎসা দিতে পারছি না।'

তবে, পরিবারের সঙ্গে থাকায় খালেদা জিয়া মানসিকভাবে অনেকটা ‘স্বস্তিতে’ আছেন বলে জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খান।