করোনা হানা দিয়েছে যেসব এমপি-মন্ত্রীর ঘরে

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) কাউকে ছাড়ছে না। সাধারণ মানুষ থেকে শুরু দেশের শীর্ষ পর্যায়ের ব্যক্তিরাও আক্রান্ত হচ্ছেন এ ভাইরাসে। ঘটছে মৃত্যুর ঘটনাও।

বাংলাদেশেও করোনাভাইরাস হানা দিয়েছে সংসদ সদস্যের ঘরে। এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন তিনজন এমপি। যদিও এদের দুজন এরই মধ্যে সুস্থ হয়ে গেছেন। তবে করোনা থেকে এখনো সুরক্ষিত আছে দেশের মন্ত্রিসভা।

কিন্তু যেভাবে তাদের বাসা, চলাচলের সঙ্গীরা সংক্রমিত হচ্ছেন, তাতে যেন করোনা উড়ে বেড়াচ্ছে মন্ত্রীদের আশপাশে। এক্ষেত্রে মন্ত্রীদের আরও সচেতন হয়ে চলার কথাই বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদের মেয়ে জেবা জামান চৌধুরীর সঙ্গে সম্প্রতি এস আলম গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান আবদুস সামাদ লাবুর ছেলে আতিকুল আলমের বাগদান সম্পন্ন হয়। লকডাউনের মধ্যেই ভূমিমন্ত্রীর চট্টগ্রামের বাসায় এই বাগদান হয়। ওই বাগদানে অংশ নেয়া এস আলম গ্রুপের পরিচালক মোরশেদুল আলমসহ দুইজন ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়ে ইতোমধ্যেই মারা গেছেন । ওই বাগদানের অনুষ্ঠান থেকে আরও কয়েকজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

করোনায় আক্রান্ত পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের সরকারি বাসার চার কর্মী। এ ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেলের গানম্যানের দেহেও। ইতোমধ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

মন্ত্রিসভা এখন পর্যন্ত সুরক্ষিত থাকলেও করোনা এরই মধ্যে আক্রান্ত করেছে তিনজন সংসদ সদস্যকে। এরা হলেন- চট্টগ্রাম-৬ আসনের এমপি এবং রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী, নওগাঁ-২ আসনের এমপি শহীদুজ্জামান সরকার এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ এবাদুল করিম বুলবুল। প্রথম দুজন এরই মধ্যে সুস্থ হয়ে গেলেও এখনো করোনার সাথে লড়াই করছেন বিকন ফার্মার ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বিকন ডেভেলপমেন্ট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবাদুল করিম বুলবুল।