ইভ্যালি কাণ্ডে জামিন পেলেন তাহসান

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির হয়ে প্রতারণামূলক কর্মকাণ্ডে সহযোগিতা ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ধানমন্ডি থানার মামলায় অভিনেতা ও কণ্ঠশিল্পী তাহসান খান জামিন পেয়েছেন।


বুধবার (২ মার্চ) ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) রেজাউল করিম তার জামিন মঞ্জুর করেন। এর আগে হাইকোর্টের দেয়া ছয় সপ্তাহের আগাম জামিনের মেয়াদ শেষ হলে তাহসান তার আইনজীবীর মাধ্যমে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন।


২০২১ সালের ৪ ডিসেম্বর রাজধানীর ধানমন্ডি থানায় তাহসান, মিথিলা ও শবনম ফারিয়াসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন সাদ স্যাম রহমান নামে ইভ্যালির এক গ্রাহক।


সাদ স্যাম তার অভিযোগে উল্লেখ করেন, প্রতারণামূলকভাবে গ্রাহকের টাকা আত্মসাৎ ও এতে সহায়তা করা হয়েছে। আত্মসাৎ করা টাকার পরিমাণ ৩ লাখ ১৮ হাজার, যা তিনি এখনো উদ্ধার করতে পারেননি।


মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, তাহসান, মিথিলা ও শবনম ফারিয়া ইভ্যালির বিভিন্ন দায়িত্বে ছিলেন। তাদের উপস্থিতি এবং তাদের বিভিন্ন প্রমোশনাল কথাবার্তার কারণে আস্থা রেখে বিনিয়োগ করেন সাদ স্যাম রহমান। এসব তারকার কারণে মামলার বাদী প্রতারিত হয়েছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।


পরে ওই মামলায় গত বছরের ১৩ ডিসেম্বর অভিনেত্রী মিথিলা ও শবনম ফারিয়াকে ৮ সপ্তাহের জামিন দেন হাইকোর্ট। তবে তাহসান বিদেশে থাকায় তার জামিন আবেদন করতে দেরি হয়।


এরপর চলতি বছরের ২০ জানুয়ারি বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেন ও বিচারপতি খিজির হায়াতের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের ভার্চুয়াল বেঞ্চ তার ছয় সপ্তাহের জামিন মঞ্জুর করেন।


ইভ্যালিতে অভিনেতা তাহসান খান শুভেচ্ছা দূত হিসেবে ছিলেন। আর মিথিলা ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির ‘ফেস অব ইভ্যালি লাইফস্টাইল’ হিসেবে। প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা হিসেবে যোগ দেন শবনম ফারিয়া।