ফেসবুককে ৫০০ কোটি ডলার জরিমানা

ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস কেলেঙ্কারির জন্য ফেসবুককে ৫০০ কোটি ডলারের জরিমানা করার সিদ্ধান্ত অনুমোদন করেছে মার্কিন কর্তৃপক্ষ।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের প্রচারণায় ব্যবহার করতে প্রায় পাঁচ কোটি ফেসবুক ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য কাজে লাগায়।

গত ২০১৬ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রচারণায় পরামর্শক হিসেবে কাজ করে প্রতিষ্ঠানটি।

যদিও ফেসবুক কর্তৃপক্ষ পরে মোট ৮ কোটি ৭০ লাভ গ্রাহকের তথ্য চুরির খবর নিশ্চিত করে।

বিবিসি জানায়, অভিযোগের পরেই তদন্তে নামে মার্কিন তদারকি সংস্থা ফেডারেল ট্রেড কমিশন (এফটিসি)।

তদন্তে বেরিয়ে আসে ব্যবহারকারীদের অনুমতি ছাড়াই কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা এসব তথ্য ব্যবহার করেছে এবং ব্যক্তিগত গোপনীয়তা লঙ্ঘন করেই তাদের কাছে তা হস্তগত হয়েছে।

গ্রাহকের তথ্য নিজেদের বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করার অভিযোগ ফেসবুকের বিরুদ্ধে জরিমানার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এফটিসি। ৩-২ ভোটে ৫ বিলিয়ন (৫০০ কোটি) ডলার জরিমানা করার সিদ্ধান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়।

তবে ফেসবুক এবং এফটিসি এ ব্যাপারে কোনো ধরনের প্রতিক্রিয়া জানায়নি।

কেমব্রিজ অ্যানালিটিকার কাছে গ্রাহকদের তথ্য বেহাতের ঘটনায় ২০১৮ সালের মার্চ থেকে ফেসবুকের বিরুদ্ধে অভিযোগ নামে এফটিসি।

এতে উঠে আসে, ২০১১ সালের চুক্তি লঙ্ঘন করেছে ফেসবুক। ফেসবুক গ্রাহকদের ব্যক্তিগত তথ্য ব্যবহারে যুক্তরাজ্যভিত্তিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠানটির প্রতি সম্মতি ছিল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটির।