কোহলির জন্য টুইটারই বন্ধ করে দেবেন বেন স্টোকস!

বিরাট কোহলির জন্য টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ দেবেন বলে জানিয়েছেন ইংলিশ অলরাউন্ডার বেন স্টোকস।

গতকাল রোববার নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে কোহলিকে জড়িয়ে একটি টুইট করেন স্টোকস যা এখন পযন্ত ২০ হাজার বারের বেশি রিটুইট হয়েছে। ৬৫ হাজার বারেরও বেশি লাইক জমা পড়েছে তাতে।

সেখানে তিনি লেখেন, কোহলি আমার নাম মুখে আনছেন এ কথা আর পড়তে চাই না। এক লাখেরও বেশি বার এ কথা আমাকে পড়তে হয়েছে।খেলার মধ্যে বেন স্টোকসের নাম নেন কোহলি এমনটাই দাবি অভারতীয় ক্রিকেটভক্তদের।

তাদের দাবি, ব্রেক থ্রু আনলে বা গুরুত্বপূর্ণ উইকেট পড়লে সতীর্থদের সঙ্গে বিষয়টি উদযাপনকালে কোহলি একটি শব্দ উচ্চারণ করেন। ভারতীয় অধিনায়কের এমন ঠোঁট নড়া চড়া দেখে মনে হয় তিনি স্টোকসের নাম নিচ্ছেন।

যদিও সেই খেলায় বেন স্টোকসের কোনোই সম্পৃক্ততা থাকে না।এমন কাণ্ড কোহলি প্রায়শই করে থাকেন। গতকালের পাক-ভারত ম্যাচেও উইকেটপ্রাপ্তির পর উদযাপনকালে এ শব্দ মুখে এনেছেন কোহলি কয়েকবার।আর সেটি ক্যামেরায় আসতেই বেন স্টোকসকে ভিডিওসহ টুইটে ট্যাগ ও মেনশন করতে থাকেন নেটিজেনরা।

টুইটারে নেটিজেনদের এমন হাস্যরসে যুক্ত হয়েছেন বেন স্টোকসও। তবে বিষয়টি নিয়ে এতোই বাড়াবাড়ি আর ট্যাগে স্টোকস এতোই বিরক্ত যে এক টুইটে এই ইংলিশ অলরাউন্ডার জানালেন, কোহলির কারণে যদি বারবার তাকে ট্যাগ করা হয় তাহলে টুইটার অ্যাকাউন্টটি ডিলিট করে দেবেন।

ওই টুইটে স্টোকস লিখেছেন, ‘আমি হয়তো টুইটার ছেড়েই দিব যেন কোনো টুইট বার্তায় আমার পড়তে না হয় কোহলি বেন স্টোকসের মতো শব্দটি বলছে কোহলি। সে কি বলে তা তো আপনারা জানেন। প্রথম ১ লক্ষ বার এটা রসাত্মক ছিল। ’তবে স্টোকসের এমন এই টুইটেও থামেনটি টুইটার ব্যবহারকারীরা। সেই টুইটেও অনেকে কোহলির সেই ঠোঁটভঙ্গির চিত্র আপলোড করছেন।

মূলত কোহলি কখনোই বেন স্টোকসের নাম বলেন না। উইকেট পাওয়ার পর আগ্রাসী উদযাপনের সময় কোহলি হিন্দিভাষায় একটি মন্দ শব্দ উচ্চারণ করেন। যা ভারতীয়রা বুঝতে পারলেও লিপ রিডিং করে অভারতীয়রা এটাকে বেন স্টোকসই মনে করেন।