ম্যাচ জয়ের কৃতিত্ব নিয়ে সাকিব-লিটন দ্বন্দ্ব!

গতকাল ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ৩২২ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে হেসেখেলে জিতেছে টাইগাররা। এই জয়ে সবচেয়ে বেশি অবদান রেখেছেন দুই টাইগার ব্যাটসম্যান লিটন দাস ও সাকিব আল হাসান। তারা চতুর্থ উইকেটে গড়েন রেকর্ড ১৮৯ রানের জুটি। এ সময় সাকিব করেন অপরাজিত ১২৪ রান আর লিটন ৯৪ রান।

এমন জয়ের পর দুই ব্যাটসম্যানকে প্রশংসার বন্যায় ভাসাচ্ছে ক্রিকেট প্রেমিরা। কারো চোখে এই জয়ের মূল নায়ক সাকিব আবার কেউবা বলছেন লিটন। এদিবে মাশরাফি বিন মুর্তজা আবার বলছেন ম্য্যাচ ঘুরিয়ে দিয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান। তবে কৃত্বি নিয়ে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েছেন সাকিব ও লিটন। তারা জয়ের কৃতিত্ব দিচ্ছেন একে অপরকে।

ম্যাচ শেষে জয়ের অবদান লিটনকে দিয়ে সাকিব বলেন, উইকেটের অবস্থা আমি ভালোভাবে জানতাম। আমি তাকে বলেছিলাম আমরা যদি ক্রিজে থাকতে পারি, তিন নম্বর জুটিতেই জয় পাওয়া সম্ভব। ১০-১৫ বল খেলার পর লিটন যেভাবে ব্যাটিং করছিল, আমি খুব উপভোগ করছিলাম। অপর প্রান্ত থেকে তাঁর ব্যাটিং দেখতে খুব ভালো লাগছিল। রান তাড়া করতে গিয়ে ওর জন্য একবারও আমাকে চাপে পড়তে হয়নি। তাঁর ইনিংসে এটাই সবচেয়ে বড় বিষয়। বিশ্বকাপে অভিষেক ম্যাচে এটা খুব কঠিন কাজ।

লিটন নিজে অবশ্য দুজনের বোঝাপড়ার ব্যাপারটিকেই বড় করে দেখেছেন। তিনি বলেন, তিনি (সাকিব) অনেক আমাকে সাহস দিয়েছেন। তিনি রান পেলে যেমন আমার অনুভূতি ভালো লাগছিল। সাকিব ভাই জানতেন আমি এমন জায়গায় অভ্যস্ত নই। আমার জন্য একটা চ্যালেঞ্জিং একটা মঞ্চ। তবে ভাইয়ের অনুপ্রেরণায় ভালোই করেছি। আসলে এই জয়ের মূল অবদানটা সাকিব ভাইয়ের।

জয়ে কার অবদান বেশি সেটা আপাতত গুরুত্বপূর্ণ না। বাংরাদেশি দর্শকরা মনে করছেন ১১ জনই জয়ে অবদান রেখেছেন। তাদের আশা সামনের ম্যাচগুলোতেও এভাবে খেলবে বাংলাদেশ।