এক যুগ পর কোপার ফাইনালে ব্রাজিল

এখন পর্যন্ত আটবার কোপা আমেরিকার শিরোপা জিতেছে ব্রাজিল। যদিও সর্বশেষ শিরোপাটি জিতেছিল ২০০৭ সালে। পরের দুটি আসরে কোয়ার্টার-ফাইনাল থেকে বিদায় নেওয়ার পর ২০১৬ সালের আসরে গ্রুপ পর্ব থেকেই ছিটকে গিয়েছিল সেলেসাওরা। দীর্ঘ ১২ বছর পর আবারও ফাইনালে ব্রাজিল।

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনাকে ২-০ গোলে হারিয়েই কোপা আমেরিকার চলমান আসরের ফাইনালের টিকেট কাটলো তিতের শিষ্যরা। ব্রাজিলের হয়ে এদিন গোল করেছেন গ্যাব্রিয়েল জেসুস ও রবার্তো ফিরমিনো।

বেলো হরিজন্তের মিনেইরো স্টেডিয়ামে এদিন শুরু থেকেই আধিপত্য বিস্তার করে খেলছিল ব্রাজিল। প্রথমার্ধের ১৯তম মিনিটেই এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। ডান দিক দিয়ে আক্রমণে উঠে দানি আলভেস দুজনকে কাটিয়ে সামনে রবের্তো ফিরমিনোকে পাস দেন। ডি-বক্সের মুখে পেয়ে অনায়াসেই জালে পাঠান জেসুস।

৩০তম মিনিটে সমতায় আসার সুযোগ পেয়েছিল আর্জেন্টিনা। কিন্তু ভাগ্যের ফেরে গোলবঞ্চিত হয় আর্জেন্টিনা। মেসির ফ্রি-কিকে আগুয়েরোর নেওয়া হেড ক্রসবারে প্রতিহত হয়। প্রথমার্ধের বাকি সময়টা কাটে দুই দলের বিচ্ছিন্ন কিছু আক্রমণে। আর কোনো গোল না হওয়ায় ১ গোলের লিড নিয়েই বিরতিতে যায় ব্রাজিল।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে আবার জমে ওঠা লড়াই। ৭১তম মিনিটে ফিরমিনোর গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে ব্রাজিল। গোলটিতে মূল কৃতিত্ব অবশ্য জেসুসের। মাঝমাঠ থেকে একজনকে কাটিয়ে বল পায়ে ছুটে একজনকে গতিতে পেছনে ফেলে এবং সবশেষ ডি-বক্সে ঢুকে জেসুস বল বাড়ান ডান দিকে।

ফাঁকায় বল পেয়ে বাকিটা অনায়াসে সারেন লিভারপুলের ফরোয়ার্ড ফিরমিনো। শেষ পর্যন্ত আর গোল না হওয়ায় ২-০ ব্যবধানে ম্যাচ জিতে নেয় ব্রাজিল। ফলে আরও একবার খালি হাতেই ফিরতে হলো জাতীয় দলের হয়ে অধরা শিরোপা জয়ের লক্ষ্যে থাকা বার্সেলোনার তারকা ফরোয়ার্ড মেসিকে।