মাদক নিয়ে নিষিদ্ধ ভারতীয় ওপেনার

নির্বাসিত হলেন ভারতীয় দলের তরুণ ক্রিকেটার পৃথ্বী শ৷ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ককে আট মাসের জন্য সাসপেন্ড করেছে বিসিসিআই।

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে এমনটা জানিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড৷

পৃথ্বীর মূত্রের নমুনায় যে নিষিদ্ধ ওষুধের উপাদান পাওয়া গিয়েছে তা সাধারণত কাশির সিরাপে পাওয়া যায় বলে জানিয়েছে বিসিসিআই।

চলতি বছরে সইদ মুস্তাক আলি ট্রফির সময় ২২ ফেব্রুয়ারি ইনদওরে পৃথ্বীর মূত্রের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। বিসিসিআইয়ের সেই অ্যান্টি ডোপিং টেস্টিং প্রোগ্রামে পৃথ্বীর মূত্রে নিষিদ্ধ টারবুটালাইন পাওয়া যায়। ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সি (ওয়াডা)-র নিয়ম মতো, টারবুটালাইন এমন একটি নিষিদ্ধ উপাদান যা টুর্নামেন্ট চলুক বা না চলুক খাওয়া যাবে না।

পৃথ্বী শ অভিযোগ স্বীকার করে নিয়ে জানিয়েছেন, এটা অনিচ্ছাকৃত। সর্দির জন্য কাশির সিরাপ খেয়েই এটা হয়েছে।’